Logo
আজঃ রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২
শিরোনাম

বাবার পর ভারতে ছেলেও প্রধান বিচারপতি, শপথ নিলেন ধনঞ্জয় চন্দ্রচূড়

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৮৩জন দেখেছেন
Image

ভারতের ৫০তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথগ্রহণ করেছেন বিচারপতি ধনঞ্জয় যশবন্ত চন্দ্রচূড়। বুধবার রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু চন্দ্রচূড়কে শপথবাক্য পাঠ করান। মঙ্গলবারই সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির পদ থেকে অবসর গ্রহণ করেছেন উদয় উমেশ ললিত। শপথ নেওয়ার পরেই চন্দ্রচূড় বলেছেন, “আমার কাজ কথা বলবে”।

১১ অক্টোবর কেন্দ্রীয় সরকারকে চিঠি লিখে বিচারপতি ললিত তার উত্তরসূরি হিসেবে চন্দ্রচূড়ের নাম প্রস্তাব করেছিলেন। কেন্দ্রীয় আইন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে চন্দ্রচূড়ের নাম রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো হলে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মতি জানান। 

চন্দ্রচড়ের বাবা যশবন্ত বিষ্ণু (ওয়াই ভি) চন্দ্রচূড় আট বছর (১৯৭৮-১৯৮৫) ভারতের প্রধান বিচারপতি ছিলেন। এত দীর্ঘ সময় ধরে ভারতে কেউ প্রধান বিচারপতি পদে থাকেননি। পিতা এবং পুত্র দু’জনেই ভারতের প্রধান বিচারপতি হচ্ছেন, এমন নজিরও আগে দেখা যায়নি। ২০১৬ সালে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে কাজ শুরু করা চন্দ্রচূড় প্রধান বিচারপতির পদে ২০২৪ সালের ১০ নভেম্বর পর্যন্ত থাকবেন। 

সূত্র : আনন্দবাজার


আরও খবর



ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে জিনের পুতুলে’ প্রতারণা

প্রকাশিত:রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ১১৬জন দেখেছেন
Image

জয়নুল আবেদীন,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: নাজমা ওরফে ছুটুনি বুড়ির দাবি, স্বপ্নে স্বর্ণের পুতুলের সন্ধান পেয়েছেন। ঐ পুতুল রয়েছে তাঁর বসতঘরে। এটি তুলতে হলে মসজিদে দিতে হবে ২ লাখ ২০ হাজার টাকা।

এভাবে পুতুল তোলা নিয়ে প্রতারণা করে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছ থেকে নাজমা টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল উপজেলায়। এদিকে বিষয়টি থানায় জানিয়েও কোনো প্রতিকার মিলছে না অভিযোগকারীদের।

অভিযোগ থেকে জানা গেছে, নাজমা রাণীশংকৈল উপজেলার লেহেম্বা ইউনিয়নের কোচল এলাকার আব্দুল বারেকের স্ত্রী। তিনি সম্প্রতি রানীশংকৈল উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের মহারাজাহাট এলাকায় মোজাফফর রহমানের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নেন। সেখানে গিয়ে তাঁর অভাব-অনটনের বিষয় মোজাফ্ফরকে বলেন। একপর্যায়ে তাঁকে ধর্মের ছেলে বানিয়ে আত্মীয়তা তৈরি করেন। ১০ নভেম্বর রাতে মোজাফ্ফর স্ত্রী সহ নাজমার বাড়িতে গেলে নাজমা বলেন, তাঁর ঘরে ‘জিনের পুতুল’সহ বিভিন্ন স্বর্ণালংকার রয়েছে। এগুলো মাটি থেকে তুলতে জিনের নির্দেশনা অনুযায়ী দুই মসজিদে মোট ২ লাখ ২০ হাজার টাকা দান করতে হবে। তাঁর তো এত টাকা নেই। তিনি যদি ধার দিতেন তাহলে দেওয়ার এক ঘণ্টা পরই পুতুল সহ স্বর্ণালংকার তুলে বিক্রি করে তাঁকে টাকাটা ফেরত দেবেন। এরপর মোজাফ্ফর তাঁকে ঐ টাকা ধার দেন।

অভিযোগ থেকে আরও জানা গেছে, টাকা নেওয়ার পর মোজাফ্ফর ও তাঁর স্ত্রীকে বাড়িতে বসতে বলেন।

একপর্যায়ে বাড়িতে কয়েকজন এসে বলেন, ‘আপনারা এত রাতে এখানে কী করেন। এখান থেকে চলে যান, না হলে সমস্যা আছে। অবস্থা বেগতিক দেখে মোজাফ্ফর তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে সেখান থেকে চলে আসেন।

পরে স্থানীয় সচেতন ব্যক্তিদের পরামর্শে পরদিন নাজমা সহ ৮ জনকে আসামি করে রানীশংকৈল থানায় লিখিত অভিযোগ দেন মোজাফ্ফর।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, নাজমা প্রায় সময়ই মানুষের সঙ্গে স্বপ্নে পাওয়া পুতুলের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণা করে আসছেন। তাঁকে সহায়তায় তাঁর বাড়ির আশপাশজুড়ে রয়েছে একটি চক্র। রাণীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় ইউনিয়নের শাহানাবাদ এলাকার রশিদুল ইসলাম জানান, তাঁকেও জিনের পুতুলের কথা বলে ১ লাখ টাকা প্রতারণা করেছেন নাজমা।

একইভাবে রানীশংকৈল উপজেলার রাতোর ইউনিয়নের রাঘবপুর গ্রামের ভম্বল বানিয়া বলেন, জিনের পুতুলের স্বর্ণ তাঁর কাছে বিক্রি করবেন এমন প্রলোভন দেখিয়ে নাজমার বাড়ি কোচলে ডেকে নিয়ে ১ লাখ ১৭ হাজার টাকা নিয়ে নেন। পরে তাঁকে ভয়ভীতি দেখিয়ে সেখান থেকে পাঠিয়ে দেন নাজমার লোকজন।

এদিকে অভিযোগ দেওয়ার ৬ দিন পর গত বৃহস্পতিবার রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদ ইকবাল ও সহকারী পুলিশ সুপার (রাণীশংকৈল সার্কেল) কামরুল হাসান জানান, ঘটনাস্থল তাঁদের এলাকায় নয়, তা ছাড়া এ ঘটনার কোনো সাক্ষী-প্রমাণ নেই। এ কারণে তাঁরা মামলাটি নিতে পারছেন না।


আরও খবর



নেত্রকোনার কলমাকান্দা সীমান্তে বেড়েছে চোরাচালান, আসছে গরু,সুপারী ও মাদকদ্রব্য

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ | ১৩৭জন দেখেছেন
Image

নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর আবারো বাড়ছে নেত্রকোনার কলমাকান্দা ও দুর্গাপুর সীমান্তে গরু,সুপারী,সহ মাদকদ্রব্যের চোরাচালান। সক্রিয় হয়ে ওঠেছে সীমান্তের চোরাচালানকারীরা। ভারত থেকে দুই উপজেলার বিভিন্ন পাহাড়ের পাশ কাটিয়ে চোরাকারবারীরা তাদের কাজ করে প্রশাসনের নাকের ডগায়, পাঁচ গাঁও,লেংগুড়া,খারনৈ,ও দুর্গাপুর উপজেলার ভবানীপুর,বারমারী,ও বিজয়পুর এলাকার সীমান্ত দিয়ে বাড়ছে গরু ও মাদকদ্রব্য পাচার। এতে শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এসব এলাকায় বসবাসকারী স্থানীয় বাসিন্দারা।

সোমবার (৭ নভেম্বর) সরেজমিন গেলে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে ওঠে আসে এমন তথ্য।

বিশেষ সূত্রে জানা যায়, কলমাকান্দা ও দুর্গাপুর উপজেলার সীমান্তঘেষাঁ গ্রামগুলোর পাশে ভারতের মেঘালয় রাজ্যের সীমানা। এখানে সীমানা পিলারের জিরো পয়েন্টে ভারতের কাটাতারের বেড়ার নিচে বিভিন্ন স্থানে রয়েছে গোলাকৃতির কালভার্টের ফাঁক। যেখানে কাঁটাতারের বেড়া শেষ সেখানে খোলা অংশ। কোথাও নদী বা নদীর ওপর ব্রিজ। এসব কালভার্ট, খাল আর ব্রিজের ফাঁকা স্থান ব্যবহার করে চোরাকারবারিরা। বিএসএফ ও বিজিবির চোখ ফাঁকি দিয়ে এসব পথ দিয়ে চোরাকারবারীরা আনছে গরু ও মাদক দ্রব্য। 

চোরাই পথে আসা এসব গরু বেচাকেনা হচ্ছে স্থানীয় সীমান্ত এলাকা বিভিন্ন, গ্রামের বাজারে। ওইসব গ্রামের বাসিন্দারা জানান, প্রায় ৩-৪ মাস যাবত ভারতের বিএসএফের চোখ ফাঁকি দিয়ে চোরাই পথে আসছে গরু আর মাদকদ্রব্য। সপ্তাহের শনিবার দিবাগত ভোররাতেই বেশি আসে গরু। এজন্য ওইসব গ্রামে প্রতি শনিবার সন্ধ্যা হতে জড়ো হতে থাকে পাইকাররা। বেচাকেনা হয় সীমান্ত ঘেঁষা ওইসব গ্রামে। এর পর পাহাড়ি পথ বেয়ে নিয়ে আসা হয় কলমাকান্দা ও গুতুরা সহ বিভিন্ন বাজারে। গরুর সঙ্গে আসছে মাদকদ্রব্য। এসব বিক্রি হয় সিক্রেট। তবে মাদক ব্যবসায়ীদেরও আনাগোনা প্রকাশ্যেই।

বিশেষ সূত্রে জানা যায়, এসব চোরাচালানের সঙ্গে সরাসরি জড়িত আওয়ামী লীগ নাম দারি কিছু নেতা তারা আওয়ামী লীগের নাম বিক্রি করে এই ব্যবসা করে আসছেন। 

এদের মধ্যে অনেকেই মাদক ও গরুসহ একাধিকবার পুলিশ ও বিজিবির হাতে আটক হয়েছিল। জেলও খেটেছে। এ ব্যাপারে কথা হয় লেংগুরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সিদ্দিকের সাথে। তিনি বলেন, এখানে অনেকেই ভারতের চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত। তাদের জিজ্ঞেস করলে তারা শুধু আমার নাম বলে। আমি এখন আর বর্ডারে যাইনা। এ ব্যাপারে অন্যদের সঙ্গে ফোনে বা সরাসরি যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি। 

কলমাকান্দা উপজেলার লেঙ্গুড়া ইউনিয়নের কালোপানি সীমান্ত ছড়া ১১৭১-৭২ পিলার পয়েন্ট দিয়ে প্রতিদিন টনের টন সুপারি বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রচার করছে কিছু অসাধু চোরাচালানকারীরা। রবিবার(৬ নভেম্বর) দুপুরে কালোপানি এলাকায় ঘুরতে গিয়ে এই দৃশ্য চোখে পড়ে। আমার কাছে এই দৃশ্যটা অদ্ভুত মনে হলে আমি পাহাড়ের চূড়ায় বসে বসে মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করি। দুর থেকে বুঝা যাচ্ছিল না এত লোক মাথায় বহন করে কি নিয়ে যাচ্ছে, ধান না সুপাড়ী, কাছে গিয়ে কয়েকজন সুপাড়ী বহনকারীকে জিজ্ঞেস করলে তারা জানায়, এগুলো  সুপাড়ী ভারতে যাচ্ছে।

ছড়া থেকে আরেকটু দুরে তাকিয়ে দেখি কয়েকজন সুপাড়ীর মাহাজন লেঙ্গুড়া ইউনিয়নের গৌরিপুর এলাকার সবুজ মিয়া, ফুলবাড়ি এলাকার রফিকুল, শুভ্র বনিক, রমজান, গফুর, ইয়াসিন, জহিরুল, তারা সুপাড়ী বহনকারীদের  নির্দেশ দিচ্ছে তোমরা তাড়াতাড়ি করো বিজিবি এসে পড়বে। সেখান থেকে আনুমানিক এক গজ দুরে সীমান্ত পিলার নং ১১৭২ পয়েন্টে বিজিবি টহল দিচ্ছে। অথচ বিওপির নাকের ডগা দিয়ে প্রতিদিনেই এই চোরাচালান কারবারীরা টনের টন সুপারি এপার থেকে ওপারে প্রচার করছে, বিজিবি যেনো নিরব ভূমিকায়।

আরেক সূত্রে জানা যায়, সীমান্তের চোরাচালানের নিয়ন্ত্রণ করছে লেংগুরা বর্ডারের সবুজ মিয়া। ফলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সীমান্তে প্রবেশ করলেই মোবাইল ফোনে সতর্ক করে দেয়। ফলে নির্ভয়েই ব্যবসা করছেন চোরাচালানকারীরা। বিনিময়ে এ দুজন তাদের কাছ থেকে গরু প্রতি নেয় দুই শ থেকে তিন শ টাকা। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গরু চোরাচালানকারী জানান, হুন্ডির মাধ্যমে ভারতে টাকা পাঠানো হয়। সেখান থেকে নিয়ে আসা হয় গরু ও মাদকদ্রব্য। এতে রয়েছে জীবনের ঝুঁকি। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর মামলা মোকদ্দমায় অনেকে এলাকা ছাড়া। তবুও থেমে নেই গরু চোরাচালান আর মাদক ব্যবসা।

লেংগুরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান জানান, এখানে স্থানীয় কয়েকজন জড়িত আছে। এছাড়া গৌরীপুর,, ফুলবাড়িয়া, থেকে অনেকে আসে। তাদেরকে নিষেধ করলেও তারা মানে না। 

এ ব্যাপারে লেংগুরা বিজিবি ক্যাম্প ইনচার্জের সাথে বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।



আরও খবর



চারঘাটে হত্যা মামলার আসামী লিটন গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ২১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
Image

চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর চারঘাটে পুলিশের বিশেষ অভিযান চালিয়ে হত্যা মামলার পলাতক আসামী লিটনকে গ্রেফতার করেছে মডেল থানা পুলিশ।

থানা সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার দুপুরে এসআই আমানউল্লাহ, এএসআই আব্দুল জলিল ও সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সরদহ ইউনিয়নের হুজারপাড়া নামক স্থানে শশুড়বাড়ি থেকে লিটনকে আটক করে পুলিশ। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন এলাকায় আতœ গোপন করে ছিলেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে রবিবার দুপুওে শশুড়বাড়িতে অবস্থান করে। পরে সে পুলিশের উপস্থিতিতে টের পেয়ে পালানো অবস্থায় আখক্ষেতে দৌড়ে তাকে আটক করা হয়।  আটককৃত হলেন উপজেলার সরদহ হুজারপাড়াা গ্রামের জহুরুল ইসলাম ওরফে ঝড়– মন্ডল ছেলে লিটন আলী (২২)। 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুল আলম বলেন, জিআর-১৩১/২২ হত্যা মামলার পলাতক আসামী লিটনকে গ্রেফতার করে দুপুরে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হয়েছে বলে জানান ।


আরও খবর



হরিপুরে জমি নিয়ে বিরোধে কুলসুম নামে একজন মর্মান্তিকভাবে জখম

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ১৩১জন দেখেছেন
Image

জয়নাল আবেদিন: হরিপুরে জমি নিয়ে বিরোধে কুলসুম নামে একজনকে হাসুয়া এবং কোদাল দিয়ে গলায় এবং কানে আঘাত করে মর্মান্তিকভাবে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা । গলা এবং কানে তাতে কিছু অংশ কেটে  গিয়ে প্রচুর রক্তক্ষরন হয়ে হরিপুর হাসপাতালে ভর্তি হয়।

তাদের বাড়ি হরিপুর উপজেলার ১নং গেদুরা ইউনিয়নের পঁচাঘুড়িয়া গ্রামের শেখার মোরে।

জানা গেছে দুর্বৃত্ত সলিম,সাহেদ গোলজান দেশিয় অস্থ নিয়ে কুলসুম সহতার পরিবারের লোকজনের উপর আক্রমণ করে এলোপাথারি ভাবে মারপিট করে এবং হাসুয়া দিয়ে কোপ দেয়।পরে স্থানিয় লোকজন এসে তাদের রক্ষা করে।

এই ব্যাপারে হরিপুর থানায় একটি এজহার করা হয় বলে হরিপুর থানার অসি মোঃ তাজুল ইসলাম  বিষয়টি নিশ্চিত  করেন।


আরও খবর



সিরাজগঞ্জে ধর্ষণ মামলার ২ পলাতক আসামী গ্রেফতার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
Image
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের তাড়াশ থেকে ধর্ষণ মামলার ২ পলাতক আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান র‍্যাব-১২'র একটি দল।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাড়াশ উপজেলার ইশ্বরপুর গ্রামের রওশন ফকিরের বাড়ীর সামনে থেকে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। 
গ্রেফতারকৃতরা হলো শাহজাদপুরের নুকালী পূর্বপাড়া গ্রামের লতিফ সরকারের ছেলে ইয়াসিন সরকার ও একই এলাকার মৃত রমজান আলীর ছেলে শেরালী হোসেন। 
শুক্রবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১২ স্কোয়াড কমান্ডার লেফটেন্যান্ট মোঃ আবুল হাসেম সবুজ।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে শাহজাদপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রয়েছে। দায়ের করা মামলা হওয়ার পর থেকে তারা পলাতক ছিলেন। গ্রেফতারকৃতদের শাহজাদপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও খবর