Logo
আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

চেয়াম্যান প্রার্থী শফিকুল মুর্শেদ অরুজের সাংবাদিক দের সাথে মত বিনিময় ।

প্রকাশিত:সোমবার ১০ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | ২৮৩জন দেখেছেন

Image

পাংশা ( রাজবাড়ী) প্রতিনিধি: আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচন আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর । রাজবাড়ী  জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী এ কে এম শফিকুল মুর্শেদ আরুজ পাংশায় কর্মরত সাংবাদিক দের সাথে পাংশা প্রেসক্লাবে মত বিনিময় করেন।

এসময় নির্বাচন উপলক্ষে ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দিপনা রয়েছে বলে মত প্রকাশ করেন শফিকুল মুর্শেদ আরুজ। নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয় প্রাপ্তিতে প্রধান মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ প্রদান করেন।

আসন্ন নির্বাচনে প্রতিটি ইউনিয়ন ,পৌরসভা ও উপজেলা পরিষদের ভোটাদের মধ্যে তাল গাছ প্রতিকে ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন আমি আগামি নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে চাই।   এ কে এম শফিকুল মুর্শেদ আরুজ আরো বলেন , আগামী নির্বাচনে জয় লাভ করলে ৫ টি উপজেলায় প্রতিটি ইউনিয়রে সরকারী নির্দেশনা মেনে উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করা হবে। 

পাংশা প্রেসক্লাবে মত বিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন পাংশা উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওহাব মন্ডল, বাবু পাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ইমান আলী সরদার, পাংশা উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, পাংশা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আলী বাদশ, সাবেক সভাপতি মোঃ মোক্তার হোসেন, সহ সভাপতি আব্দুর রশিদ, সেলিম মাহমুদ, সাংবাদিক মাসুদ রেজা শিশির , প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈকত শতদল, অর্থ সম্পাদক নেছার উদ্দিন সবুজ প্রমুখ। 


আরও খবর



ইসরাইলে ৪০টি রকেট নিক্ষেপ করেছে হিজবুল্লাহ

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | ১০জন দেখেছেন

Image

গাজায় ইসরাইলি বাহিনীর আগ্রাসী অভিযান শুরুর পর থেকে প্রায় প্রতিদিনই ইসরাইলি সেনাবাহিনীর সঙ্গে হিজবুল্লাহর সংঘাতের খবর পাওয়া যাচ্ছে।

ইসরাইলের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, লেবাননের দক্ষিণাঞ্চল থেকে প্রায় ৪০টির মতো ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে। ইরান-সমর্থিত লেবাননের হিজবুল্লাহ সংগঠন জানিয়েছে, তারা আপার গ্যালিলি এলাকার মাউন্ট মেরন বিমানঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এ সময় ইসরাইলের সাসা, কাফার হোশেন, দোভিফ এবং সাফসুফা শহরে সাইরেন বেজে উঠেছে। খবর এএফপি, আলজাজিরা।

হিজবুল্লাহ বলছে, তারা লেবাননের পূর্বাঞ্চলে হামলার প্রতিশোধ নিতে মঙ্গলবার ইসরাইলি বিমান ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। গত ৭ অক্টোবর ইসরাইলের ভেতরে প্রবেশ করে আকস্মিক হামলা চালায় ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। এরপরই গাজায় পাল্টা আক্রমণ চালায় ইসরাইল।

এর আগে হিজবুল্লাহর যোদ্ধারা ইসরাইলের কয়েকটি সামরিক স্থাপনায় হামলা চালায়। রোববার হিজবুল্লাহ যোদ্ধারা লেবানন সীমান্তের কাছে আল-মালিকিয়া এলাকার দুটি ভবনে জড়ো হওয়া ইসরাইলি সেনাদের ওপর হামলা চালায়। হিজবুল্লাহ দাবি করেছে, তারা উপযুক্ত অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়েছে এবং সরাসরি ইসরাইলি সেনাদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে।

গত অক্টোবর থেকে এখন পর্যন্ত সীমান্তে সংঘাতে লেবাননে কমপক্ষে ২৮৪ জন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে অধিকাংশই হিজবুল্লাহর যোদ্ধা। এছাড়া নিহতদের মধ্যে ৪৪ জনই বেসামরিক নাগরিক। অপরদিকে ইসরাইলের ১০ সেনা এবং দেশটির ৬ বেসামারিক নাগরিক নিহত হয়েছে।

এর আগে ইসরাইল দাবি করে যে সিরিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় আল-কুসাইর শহরে ইসরাইলের একটি ড্রোন থেকে হামলা চালানো হয়েছে এবং তাতে হিজবুল্লাহর দুই যোদ্ধা শহীদ হন। হিজবুল্লাহ তাদের দুই যোদ্ধার নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে।

এদিকে গাজায় মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না। সেখানে ইসরাইলি তাণ্ডব আরও বাড়ছে। অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরাইলি বাহিনীর অভিযানে তিনজন নিহত এবং আর তিনজন আহত হয়েছে। ফারা শরণার্থী শিবিরেও তীব্র লড়াইয়ের খবর পাওয়া গেছে।

সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, আগামী সোমবার থেকে নতুন যুদ্ধবিরতি হতে পারে। আমার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা আমাকে বলেছেন যে, আমরা যুদ্ধবিরতির কাছাকাছি আছি।


আরও খবর



‘মা আস্থা রাখো’ বলে টাকা হাতিয়ে নেন দরবেশ বাবা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | ৫৭জন দেখেছেন

Image

পারিবারিক সমস্যায় থাকা এক নারী চিকিৎসক সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে এক দরবেশের দ্বারস্থ হন। আর সমস্যা সমাধানের কথা বলে ওই দরবেশ হাতিয়ে নেন নারী চিকিৎসকের ২৫ লাখ টাকা। প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পেরে গত বছরের ৭ নভেম্বর রাজধানীর খিলগাঁও থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী ওই নারী চিকিৎসক। মামলার সূত্র ধরে তদন্ত শুরু করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

তদন্তের এক পর্যায়ে ১৮ ফেব্রুয়ারি চক্রের হোতা আশিকুর রহমানকে মাগুরা জেলা থেকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে কেরানীগঞ্জ থেকে চক্রের আরও ১৮ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। সোমবার দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডির সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সিআইডিপ্রধান অতিরিক্ত আইজিপি মোহাম্মদ আলী মিয়া। সিআইডিপ্রধান বলেন, দরবেশ পরিচয় দেওয়া এ চক্রের ১৯ সদস্যকে মাগুরা ও ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে পৃথক অভিযানে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে বাসা ভাড়া নিয়ে প্রতারণা করছিলেন।

চক্রের সদস্যদের প্রতারণায় রয়েছে দুটি ভিন্ন কৌশল। প্রথমত তারা দ্বৈবচয়নের মাধ্যমে বা ব্যক্তিগতভাবে পরিচিত অথবা অর্থ সম্পদশালী ব্যক্তিদের দারোয়ান বা ড্রাইভারের সঙ্গে প্রথমে সম্পর্ক গড়েন। পরে তাদের মাধ্যমে নির্দিষ্ট পরিবারের গোপন তথ্য সংগ্রহ করেন। পারিবারিক সমস্যাগুলো কৌশলে জেনে নিয়ে একই বাড়ির মালিক ও স্ত্রীর নম্বর সংগ্রহ করে চক্রটি। তারপর শুরু করে প্রতারণার খেলা। স্ত্রীর কাছে স্বামীর বদনাম এবং স্বামীর কাছে স্ত্রীর বদনাম বলে কান ভারী করেন।

তখন উভয়ের মধ্যে সন্দেহের সৃষ্টি হয় এবং প্রত্যেকে তাদের সমস্যা নিরসনের জন্য পথ খুঁজতে থাকেন। এ সুযোগে চক্রের সদস্যরা মসজিদে নববির ইমামের নাম নিয়ে প্রতারণা করতে থাকেন। অতিরিক্ত আইজিপি মোহাম্মদ আলী মিয়া বলেন, চক্রটির দ্বিতীয় কৌশল হলো গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চমকপ্রদ ও চোখ ঝলসানো বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রলুব্ধ করা। লটারি পাইয়ে দেওয়া, ভাগ্য বদল, পাওনা টাকা আদায়, মামলায় জেতানো, পারিবারিক সমস্যা সমাধানের কথা বলা হয় তাদের বিজ্ঞাপনে।

আধ্যাত্মিক ও তান্ত্রিক ক্ষমতাবলে বিপদগ্রস্ত লোকদের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ বলে দিতে পারবে এমন বিজ্ঞাপন দেয় চক্রটি। এসব বিজ্ঞাপন দেখে কোনো ভুক্তভোগী তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করলেই শুরু হয়ে যায় প্রতারণা। নানা কৌশলে চক্রটি লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। সিআইডিপ্রধান বলেন, এভাবেই চক্রটি পারিবারিক সমস্যা সমাধান করে দেওয়ার কথা বলে এক নারী ভুক্তভোগীর কাছ থেকে ২৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। ‘দরবেশ বাবা’ পরিচয়ে কয়েক ধাপে তার কাছ থেকে এ টাকা আত্মসাৎ করা হয়।

খিলগাঁও থানায় দায়ের করা একটি মামলার তদন্ত করতে গিয়ে এই চক্রের সন্ধান পায় সিআইডি। ভুক্তভোগী ওই নারী পারিবারিক সমস্যায় থাকায় মুক্তির পথ খুঁজছিলেন। এ অবস্থায় ফেসবুকে একটি বিজ্ঞাপন দেখে তার চোখ আটকে যায়। বিজ্ঞাপনে দরবেশ বেশধারী এক সুদর্শন ব্যক্তি নিজেকে সৌদি আরবের মসজিদে নববির ইমাম পরিচয় দিয়ে বলেন, তিনি কোরআন-হাদিসের আলোকে মানুষের সমস্যা সমাধানে কাজ করেন। বিজ্ঞাপনটি মন কাড়ে ওই নারী চিকিৎসকের। পরে বিজ্ঞাপনে দেওয়া মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করেন তিনি।

অন্য প্রান্তে থাকা দরবেশ বাবা বেশধারী ব্যক্তি সুন্দরভাবে কথা বলে তার পারিবারিক সমস্যা শুনতে চান। ভুক্তভোগী চিকিৎসক তার পরিবারের সমস্যার কথা তুলে ধরেন কথিত দরবেশ বাবার কাছে। সমস্যার কথা শুনে দরবেশ তাকে বলেন, ‘মা তোমার সব সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে। বাবার ওপর আস্থা রাখো। তোমাকে মা বলে ডাকলাম। আজ থেকে তুমি আমার মেয়ে। তবে কিছু খরচ লাগবে। খরচের কথা কাউকে জানানো যাবে না। জানালে সমস্যার সমাধান তো হবেই না, বরং সমস্যা আরও বাড়বে এবং তোমার ছেলে-মেয়ে ও স্বামীর ক্ষতি হবে।’

নারী চিকিৎসক ভণ্ড দরবেশের কথায় তার ভক্ত হয়ে যান। এর পর থেকে বিভিন্ন ধাপে বিভিন্ন সময়ে অলৌকিক সমস্যার কথা বলে প্রলোভন ও ভয়ভীতির মাধ্যমে মোট ২৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় প্রতারক চক্রটি। পরে এমএফএস (মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস) নম্বরের সূত্র ধরে মাগুরা জেলা থেকে আশিকুর রহমান নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি। তিনি চক্রের হোতা। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তাদের একটি সংঘবদ্ধ চক্র রয়েছে।

চক্রের বিভিন্ন টেকনিক্যাল সাপোর্ট, বেনামে রেজিস্ট্রেশন করা সিম এবং ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দেওয়ার কাজ করেন গ্রেপ্তারকৃত আশিকুর। পরে তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে কথিত দরবেশ পরিচয় দেওয়া ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি। গ্রেপ্তারকৃতরা জিজ্ঞাসাবাদে জানান, ২০২০-২১ সাল থেকে তারা এ প্রতারণার সঙ্গে জড়িত। প্রথম দিকে তারা বিভিন্ন পত্রিকা ও টিভি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দিতেন। পরে তারা পত্রিকা এবং বিভিন্ন চ্যানেলের পাশাপাশি ইউটিউব ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিতে থাকেন।

ভুক্তভোগী সাধারণ মানুষ তাদের দেওয়া মোবাইল নম্বরে কল দিলে সমস্যা সমাধানের নামে ভয়ভীতি ও নানা প্রলোভন দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নিত তাদের চক্রটি। গ্রেপ্তারদের কাছ থেকে প্রতারণায় জড়িত ৪১টি মোবাইল ফোন, বিপুলসংখ্যক সিমকার্ড ও ডিজিটাল আলামত উদ্ধার করা হয়।


আরও খবর

১০ দেশের রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফেরার নির্দেশ

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সংরক্ষিত নারী আসনের এমপিদের শপথ বিকালে

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ইসলামিক বিশ্বে রমজানের চাঁদ দেখার প্রস্তুতি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | ২৬জন দেখেছেন

Image

গত ১১ ফেব্রুয়ারি শাবান মাস শুরু হয়েছিল এমন বেশিরভাগ ইসলামি দেশে আগামী ১০ মার্চ পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। ইসলামি ক্যালেন্ডারের নবম মাস রমজান। হিজরি ক্যালেন্ডারের অন্যান্য সব মাসের মতো রমজান মাস শুরু হয় চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করে। ইসলামি ক্যালেন্ডারের প্রত্যেক মাসের শুরুর তারিখ চাঁদ দেখাসাপেক্ষে নির্ধারিত হয়।

জ্যোতির্বিজ্ঞান-সংক্রান্ত সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টারের (আইএসি) তথ্য অনুযায়ী, ইসলামি বিশ্বের প্রায় সব অঞ্চলজুড়ে আগামী ১০ মার্চ শাবান মাসের চাঁদ সূর্যাস্তের পর অস্ত যাবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। এর ফলে অনেক দেশে ১১ মার্চ (সোমবার) থেকে রমজান মাস শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে। বৈজ্ঞানিক গবেষণায় বর্ণিত নতুন চাঁদের দৃশ্যমানতার বিভিন্ন মানদণ্ডের ওপর ভিত্তি করে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা বলেছেন, ১০ মার্চ (রোববার) রমজান মাসের নতুন চাঁদ দেখা অসম্ভব বলে ধারণা করা হচ্ছে।

অনেক গবেষক ওইদিন আরব ও ইসলামি বিশ্বের কোথাও খালি চোখে কিংবা টেলিস্কোপ ব্যবহার করেও রমজান মাসের নতুন চাঁদ দেখা যাবে না বলে জানিয়েছেন। তবে টেলিস্কোপ ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্রের কিছু অংশ থেকে বিশেষ করে, পশ্চিমাঞ্চলে নতুন চাঁদ দেখা যেতে পারে। ইসলামি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আগামী ১২ মার্চ (মঙ্গলবার) রমজান মাস শুরু হতে পারে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

যদিও পবিত্র রমজান মাস কবে শুরু হবে, গত ডিসেম্বরই সম্ভাব্য সেই তারিখ ঘোষণা করে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাত। দেশটির ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড চ্যারিটেবল অ্যাক্টিভিটিস ডিপার্টমেন্টের (আইএসিএডি) ওয়েবসাইটে ১২ ডিসেম্বর বলা হয়, আগামী ১২ মার্চ সংযুক্ত আরব আমিরাতে রমজান মাস শুরু হতে পারে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত কর্তৃপক্ষ রমজান মাস শুরুর বিষয়ে প্রত্যেক বছর আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করে থাকে। জ্যোতির্বিজ্ঞানের গণনায় কেবল ইসলামি ক্যালেন্ডারের প্রত্যেক মাসের শুরুর সম্ভাব্য তারিখের পূর্বাভাস দেওয়া হয়। 

আইএসিএডির ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০২৪ সালে রমজান মাস ২৯ দিন হতে পারে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। সেই অনুযায়ী, আমিরাতে রমজানের শেষ দিন হবে ৯ এপ্রিল।


আরও খবর

যে আমলে আল্লাহর সাহায্য আসে

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পুণ্যময় জীবন গঠন

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




নতুন জীবনসঙ্গী খুঁজছেন মাহি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | ২১জন দেখেছেন

Image

স্বামী রকিব সরকারের সঙ্গে বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। বর্তমানে এক ছাদের নিচে থাকছেন না তারা। বিচ্ছেদ ঘোষণার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়ই একাকিত্ব নিয়ে পোস্ট করছেন এই দম্পতি। গতকাল সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে একটি পোস্ট করেছেন মাহি। যা নিয়ে শুরু হয়েছেন আলোচনা।

মাহিয়া মাহি লিখেছেন, ‘একটা আস্থার জায়গা হলেই চলবে, একটা মানুষের মতো মানুষ হলেই চলবে, একটুখানি যত্ন নিও ছেলের।’ মাহির এমন পোস্ট দেখে অবাক না হলেও অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন রকিব সরকারের সঙ্গে বিচ্ছেদ থেকে বের হতে না হতেই নতুন জীবনসঙ্গী খুঁজছেন মাহি?

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ভিডিও বার্তায় নিজের বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেও কারণ স্পষ্ট করেননি এই নায়িকা। মাহি বলেছিলেন, ‘আমি আর রাকিব খুব ভালো বোঝাপড়া থেকে বিয়ের সিদ্ধান্তে নিয়েছিলাম। কিন্তু জীবনের একটা পর্যায়ে এসে মনে হয়েছে আমাদের একসঙ্গে থাকা সম্ভব নয়। তাই আমরা আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ইতোমধ্যে আমরা আলাদা থাকছি।’

২০২১ সালে রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী কামরুজ্জামান সরকার রকিবকে বিয়ে করেন মাহিয়া মাহি। এটি মাহি ও রকিবের দ্বিতীয় বিয়ে ছিল। এর আগেও ২০১৬ সালের ২৪ মে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে বিয়ে করেছিলেন তিনি। কয়েক বছরের মাথায় ভেঙে যায় সেই সংসার। এরপরই রকিব সরকারের গলায় মালা দেন অভিনেত্রী। তাদের বিয়ের এক বছরের মাথায় জন্ম নেয় এক পুত্র সন্তানের। যার নাম ফারিশ।


আরও খবর



মালয়েশিয়ায় চালু হচ্ছে ই-পাসপোর্ট সেবা

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | ৮২জন দেখেছেন

Image

চলতি ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে অথবা আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে মালয়েশিয়া প্রবাসীদের কাঙ্ক্ষিত ই-পাসপোর্ট সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন হবে বলে জানিয়েছেন মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. শামীম আহসান। 

এসময় হাইকমিশনার মো. শামীম আহসান জানান, প্রবাসীদের দীর্ঘ প্রতীক্ষিত ই-পাসপোর্ট সেবার লক্ষ্যে ইতিমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে হাইকমিশন। ইএসএল নামক একটি আউট সোর্স কোম্পানি এ নিয়ে কাজ করছে। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহ অথবা আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে মালয়েশিয়ায় ই-পাসপোর্ট সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন হবে।

হাইকমিশনের কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে হাইকমিশনার জানান, বিগত ২৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশ হাইকমিশন মালয়েশিয়া থেকে প্রবাসীদের মাঝে মোট ২ লাখ ৬০ হাজার ৪২টি পাসপোর্ট ইস্যু করেছে। এর মধ্যে মালয়েশিয়া ডাক বিভাগের মাধ্যমে ১ লাখ ৬৬ হাজার ৮০৭টি এবং সরাসরি ৯৩ হাজার ২১৫টি পাসপোর্ট বিতরণ করা হয়। কলিং ভিসায় মালয়েশিয়ায় এসে কাজ না পাওয়া কর্মীদের অভিযোগের ভিত্তিতে মালয়েশিয়ান প্রতিষ্ঠান জেটিকের মাধ্যমে কোম্পানি পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে কাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে অনেকের এবং এখনো এ প্রক্রিয়া চলমান আছে বলেও উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান হাইকমিশনার।

অনিয়মিত কর্মীদের দেশে ফেরা প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে হাইকমিশনার বলেন, ইতিমধ্যেই মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন থেকে জানানো হয়েছে নামমাত্র জরিমানা দিয়ে অনিয়মিত প্রবাসীরা দেশে ফিরতে পারবেন খুব শিগগির। এ নিয়ে মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি আমরা এবং এ ব্যাপারে হাইকমিশন সংক্রান্ত প্রবাসীদের যেকোনো সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ হাইকমিশন সর্বদা প্রস্তুত আছে। জেলখানায় থাকা প্রবাসীদের বিষয়ে হাইকমিশনের লেবার উইং থেকে নিয়মিত খোঁজ-খবর রাখা হচ্ছে। সাজা শেষ পর্যায়ে থাকা প্রবাসীদের দেশে ফেরার সময় কারো সাথে নগদ টাকা লেনদেন না করে জেল কর্তৃপক্ষের নিকট শুধুমাত্র এয়ার টিকিট প্রদানের জন্য তাদের পরিবার বা আত্মীয়স্বজনের উদ্দেশে আহ্বান জানান হাইকমিশনার। পাশাপাশি দেশের বৃহত্তর স্বার্থে সকল প্রবাসীকে বৈধ পথে রেমিট্যান্স প্রেরণের জন্যও উদাত্ত আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাইকমিশন মালয়েশিয়ার কাউন্সেলর (কন্স্যুলার) জি এম রাসেল রানা, কাউন্সেলর (শ্রম) সৈয়দ শরিফুল ইসলাম, কাউন্সেলর (পাসপোর্ট ও ভিসা) মিয়া মোহাম্মাদ কেয়ামউদ্দিন এবং প্রথম সচিব (প্রেস) সুফি আব্দুল্লাহিল মারুফ আরটিভি প্রতিনিধি মোস্তফা ইমরান রাজু, এনটিভি প্রতিনিধি কায়সার হামিদ হান্নান, বাংলাদেশ প্রতিদিন প্রতিনিধি জহিরুল ইসলাম হিরণ, বিডিনিউজ প্রতিনিধি রফিক আহম্মদ খান, ডিবিসি নিউজ প্রতিনিধি মোহাম্মদ আলী, দ্যা নিউজ প্রতিনিধি শওকত হোসেন জনি ও খন্দকার মোস্তাক প্রমুখ।


আরও খবর

ভাষা শহীদদের প্রতি মালয়েশিয়ায় শ্রদ্ধা

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪