Logo
আজঃ রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২
শিরোনাম

চেয়াম্যান প্রার্থী শফিকুল মুর্শেদ অরুজের সাংবাদিক দের সাথে মত বিনিময় ।

প্রকাশিত:সোমবার ১০ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ১০১জন দেখেছেন
Image

পাংশা ( রাজবাড়ী) প্রতিনিধি: আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচন আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর । রাজবাড়ী  জেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী এ কে এম শফিকুল মুর্শেদ আরুজ পাংশায় কর্মরত সাংবাদিক দের সাথে পাংশা প্রেসক্লাবে মত বিনিময় করেন।

এসময় নির্বাচন উপলক্ষে ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দিপনা রয়েছে বলে মত প্রকাশ করেন শফিকুল মুর্শেদ আরুজ। নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনয় প্রাপ্তিতে প্রধান মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ প্রদান করেন।

আসন্ন নির্বাচনে প্রতিটি ইউনিয়ন ,পৌরসভা ও উপজেলা পরিষদের ভোটাদের মধ্যে তাল গাছ প্রতিকে ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন আমি আগামি নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে চাই।   এ কে এম শফিকুল মুর্শেদ আরুজ আরো বলেন , আগামী নির্বাচনে জয় লাভ করলে ৫ টি উপজেলায় প্রতিটি ইউনিয়রে সরকারী নির্দেশনা মেনে উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করা হবে। 

পাংশা প্রেসক্লাবে মত বিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন পাংশা উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওহাব মন্ডল, বাবু পাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ইমান আলী সরদার, পাংশা উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, পাংশা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ আলী বাদশ, সাবেক সভাপতি মোঃ মোক্তার হোসেন, সহ সভাপতি আব্দুর রশিদ, সেলিম মাহমুদ, সাংবাদিক মাসুদ রেজা শিশির , প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈকত শতদল, অর্থ সম্পাদক নেছার উদ্দিন সবুজ প্রমুখ। 


আরও খবর



চারঘাটে থানাপাড়া সোয়ালোজ হস্তশিল্প কারখানা পরিদর্শন করেন- অতিরিক্ত সচিব

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
Image

চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃরাজশাহীর চারঘাটে থানাপাড়া সোয়ালোজ ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি হস্তশিল্প কারখানা পরিদর্শন করেন অতিরিক্ত সচিব ও রপ্তানী উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান এ এইচ এম আহসান। রবিবার সকালে থানাপাড়া সোয়ালোজের হস্তশিল্প কারখানার তাঁত সেকশন, প্রিন্টিং সেকশান, এম্ব্রয়ডারী সেকশন ও টেইলরিং সেকশান ঘুরে দেখেন এবং উৎপাদিত রপ্তানীযোগ্য হস্তশিল্প পণ্য দেখে তিনি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, রপ্তানী উন্নয়ন ব্যূরোর পরিচালক কুমকুম সুলতানা, সহকারী পরিচালক সাইদুর রহমান, স্টাফ অফিসার মইনুল ইসলাম, সোয়ালোজের নির্বাহী পরিচালক রায়হান আলী, হস্তশিল্প প্রকল্পের জেনারেল ম্যানেজার মাইনুল হকসহ সংস্থার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ। 

 


আরও খবর



পাংশায় দিনব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ | ৮৬জন দেখেছেন
Image

সৈকত শতদল ,রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি: পাংশা উপজেলা পরিষদ চত্তরে দিনব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৯ই নভেম্বর বুধবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মাদ আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ,পাংশা সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ মাসুদুর রহমান রুবেল, পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ তদন্ত ইততেখার আলম প্রধান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জালাল উদ্দির বিশ্বাস, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া বেগম, কৃষি কর্মকর্তা রতন কুমার ঘোষ। অনুষ্ঠান সজ্ঞালনা করেন পাংশা উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শ্যামল কুমার বিশ্বাস। 

বক্তাগণ বলেন ডিজিটাল সেবার সুফল এখন মানুষ ঘরে বসে পাচ্ছে। প্রযুক্তির মাধ্যে সেবার মান বৃদ্ধিতে কাজ করছে বর্তমান সরকার। উদাহরণ হিসেবে জরুরী সেবা ৯৯৯ এর কথা উল্লেখ করেন,এছারাও তথ্য সেবা ৩৩৩ কল সেন্টার, কৃষি সেবা কল সেন্টার ১৬১২৩, ভূমি সেবা ১৬১১২। 

এ মেলায় প্রদর্শনী ষ্টল সমূহকে  ৪টি ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করা হয়েছে প্যাভিলিয়ন ১ এ রয়েছে উদ্ভাবনী ও স্টার্টআপ, প্যাভিলিয়ন ২ এর রয়েছে ডিজিটাল সেবা, প্যাভিলিয়ন ৩ এর রয়েছে হাতের মুঠোয় সেবা, প্যাভিলিয়ন ৪ এ রয়েছে শিক্ষা দক্ষতা উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থান। 

মেলায় ব্যাংক ও অর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ব্যাংক এশিয়া পাংশা শাখা অংশগ্রহন করে,এছারাও ডিজিটাল ভূমি সেবা, ই নথি কার্যক্রম ,স্ব্যাস্থ্য সেবা ,কৃষি সেবা সম্পের্কে জনসাধারণের মধ্যে প্রচারণা করা হয়।  কুইজ প্রতিয়োগীতা ও পুরষ্কার বিতরনের মধ্যে দিয়ে বিকেলে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা শেষ হয়।    


আরও খবর



নেত্রকোনার বারহাট্টায় আমন ধানের নমুনা শস্য কর্তন

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ | ৬৭জন দেখেছেন
Image
সোহেল খান দূর্জয় : নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলায় আমন ধানের নমুনা শস্য কর্তন করা হয়েছে।  সোমবার (১৪ নভেম্বর) সকালে নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার ইউনিয়নে নমুনা শস্য কর্তন করা হয়।

উপজেলা কৃষি অফিসের তত্ত্বাবধানে বারহাট্টা সদর ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের আড়াই বিঘা জমিতে ব্রিধান ৭৫ জাতের ধান চাষ করেন। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ নিয়মিতভাবে তদারকি ও পরামর্শ দিয়ে কৃষককে সহযোগিতা করেন। স্বল্প সময়ে এই ধান পেকে থাকে। ধানের ফলন কেমন হয়েছে তা দেখার জন্য সোমবার নমুনা ফসল কর্তন করা হয়। এতে দেখা যায় হেক্টর প্রতি ৪.৫৫ মে. টন ধান (শুকনো) ফলেছে। 

নমুনা ফসল কর্তনের সময় উপজেলা উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রাকিবুল হাসান, উপ-সহকারী কৃষি অফিসার উচ্ছাস পাল সহ আরো অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। 

পাশের কৃষকরা উপস্থিত থেকে তাদের ভিন্ন জাতের ধানের তুলনায় ব্রিধান ৭৫ ভাল ফলন ও অগ্রিম ফসল উঠায় আগামীতে তারাও এই জাতের ধান চাষ করবে বলে জানান। 

উল্লেখ্য জীবনকাল কম হওয়ায় অগ্রিম ফসল কাটার সুবাধে একই জমিতে কৃষক এই জাতের ধান চাষ করবে বলে জানান।

আরও খবর



ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে জিনের পুতুলে’ প্রতারণা

প্রকাশিত:রবিবার ২০ নভেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ১১৬জন দেখেছেন
Image

জয়নুল আবেদীন,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: নাজমা ওরফে ছুটুনি বুড়ির দাবি, স্বপ্নে স্বর্ণের পুতুলের সন্ধান পেয়েছেন। ঐ পুতুল রয়েছে তাঁর বসতঘরে। এটি তুলতে হলে মসজিদে দিতে হবে ২ লাখ ২০ হাজার টাকা।

এভাবে পুতুল তোলা নিয়ে প্রতারণা করে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছ থেকে নাজমা টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল উপজেলায়। এদিকে বিষয়টি থানায় জানিয়েও কোনো প্রতিকার মিলছে না অভিযোগকারীদের।

অভিযোগ থেকে জানা গেছে, নাজমা রাণীশংকৈল উপজেলার লেহেম্বা ইউনিয়নের কোচল এলাকার আব্দুল বারেকের স্ত্রী। তিনি সম্প্রতি রানীশংকৈল উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের মহারাজাহাট এলাকায় মোজাফফর রহমানের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নেন। সেখানে গিয়ে তাঁর অভাব-অনটনের বিষয় মোজাফ্ফরকে বলেন। একপর্যায়ে তাঁকে ধর্মের ছেলে বানিয়ে আত্মীয়তা তৈরি করেন। ১০ নভেম্বর রাতে মোজাফ্ফর স্ত্রী সহ নাজমার বাড়িতে গেলে নাজমা বলেন, তাঁর ঘরে ‘জিনের পুতুল’সহ বিভিন্ন স্বর্ণালংকার রয়েছে। এগুলো মাটি থেকে তুলতে জিনের নির্দেশনা অনুযায়ী দুই মসজিদে মোট ২ লাখ ২০ হাজার টাকা দান করতে হবে। তাঁর তো এত টাকা নেই। তিনি যদি ধার দিতেন তাহলে দেওয়ার এক ঘণ্টা পরই পুতুল সহ স্বর্ণালংকার তুলে বিক্রি করে তাঁকে টাকাটা ফেরত দেবেন। এরপর মোজাফ্ফর তাঁকে ঐ টাকা ধার দেন।

অভিযোগ থেকে আরও জানা গেছে, টাকা নেওয়ার পর মোজাফ্ফর ও তাঁর স্ত্রীকে বাড়িতে বসতে বলেন।

একপর্যায়ে বাড়িতে কয়েকজন এসে বলেন, ‘আপনারা এত রাতে এখানে কী করেন। এখান থেকে চলে যান, না হলে সমস্যা আছে। অবস্থা বেগতিক দেখে মোজাফ্ফর তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে সেখান থেকে চলে আসেন।

পরে স্থানীয় সচেতন ব্যক্তিদের পরামর্শে পরদিন নাজমা সহ ৮ জনকে আসামি করে রানীশংকৈল থানায় লিখিত অভিযোগ দেন মোজাফ্ফর।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, নাজমা প্রায় সময়ই মানুষের সঙ্গে স্বপ্নে পাওয়া পুতুলের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণা করে আসছেন। তাঁকে সহায়তায় তাঁর বাড়ির আশপাশজুড়ে রয়েছে একটি চক্র। রাণীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় ইউনিয়নের শাহানাবাদ এলাকার রশিদুল ইসলাম জানান, তাঁকেও জিনের পুতুলের কথা বলে ১ লাখ টাকা প্রতারণা করেছেন নাজমা।

একইভাবে রানীশংকৈল উপজেলার রাতোর ইউনিয়নের রাঘবপুর গ্রামের ভম্বল বানিয়া বলেন, জিনের পুতুলের স্বর্ণ তাঁর কাছে বিক্রি করবেন এমন প্রলোভন দেখিয়ে নাজমার বাড়ি কোচলে ডেকে নিয়ে ১ লাখ ১৭ হাজার টাকা নিয়ে নেন। পরে তাঁকে ভয়ভীতি দেখিয়ে সেখান থেকে পাঠিয়ে দেন নাজমার লোকজন।

এদিকে অভিযোগ দেওয়ার ৬ দিন পর গত বৃহস্পতিবার রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদ ইকবাল ও সহকারী পুলিশ সুপার (রাণীশংকৈল সার্কেল) কামরুল হাসান জানান, ঘটনাস্থল তাঁদের এলাকায় নয়, তা ছাড়া এ ঘটনার কোনো সাক্ষী-প্রমাণ নেই। এ কারণে তাঁরা মামলাটি নিতে পারছেন না।


আরও খবর



নেত্রকোনার বারহাট্টায় পানির নিচ থেকে কৃষকের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৬ নভেম্বর ২০২২ | ৮৭জন দেখেছেন
Image
সোহেল খান দূর্জয়: নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার আসমা ইউনিয়নের মইরাতলা বিলের পানির নিচ থেকে বুধবার সকালে আব্দুছ ছাত্তার (৫৫) নামে এক কৃষকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত ছাত্তার উপজেলার ছোট-কৈলাটী গ্রামের মগল খাঁ’র ছেলে। তিনি মঙ্গলবার রাতে ওই বিলে নিজের জমিতে চাষের মাছ পাহাড়া দিতে গিয়ে নিখোঁজ হন। 

এলাকাবাসিসূত্রে জানা যায়, মৃত ছাত্তার ছোট-কৈলাটী গ্রামের পার্শ্ববর্তী জয়কৃষ্ণনগর মৌজার মইরাতলা বিলে নিজস্ব-জমির প্রায় প্রায় দুই একর জায়গাজুড়ে বিভিন্ন জাতের মাছের চাষ করে আসছিলেন। চাষের এই মাছ রাতের বেলা এক শ্রেণীর লোকজন ধরে নিয়ে যায়। মৃত ছাত্তার ওইসব লোকদের মাছ ধরতে বিভিন্ন সময় নিষেধ করতেন। তার নিষেধ না মানায় তিনি মাছ রক্ষার জন্য প্রতি রাতেই পাহাড়া দিতেন। সর্বশেষ তিনি মঙ্গলবার (০৮ নভেম্বর) রাত আটটার দিকে মাছ রক্ষা করতে বিলে যান। গভীর রাত পর্যন্ত তিনি বাড়ি ফিরে আসেন নাই। পরে খোঁজাখুঁজি করে স্থানীয়রা মইরাতলা বিলে একটি খইনের (এক প্রকার পুকুর) পানির নিচে তার লাশের সন্ধান পেয়ে পুলিশে খবর দেন। মৃত ছাত্তারের মুখ ও গলাসহ শরিরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও অভিযোগ অনেকের। 

বারহাট্টা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ লুৎফুল হক বলেন, ছাত্তারের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার তাৎক্ষণিকভাবে কারণ জানা যায় নাই।


আরও খবর