Logo
আজঃ সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
শিরোনাম

দেশে ফিরলেন আরও ২ হাজার ৬১০ হাজি

প্রকাশিত:সোমবার ০১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১৩০জন দেখেছেন
Image
ফাইল ছবি

হজ শেষে একদিনে আরও দুই হাজার ৬১০ জন হাজি দেশে ফিরেছেন। এ নিয়ে রবিবার (৩১ জুলাই) পর্যন্ত সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরেছেন ৪১ হাজার ৬৮০ জন হাজি। আজ সোমবার ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইটি হেল্পডেস্ক হজের বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছে।

গত ১৪ জুলাই হজ শেষে ফিরতি ফ্লাইট শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট ১১৭টি ফ্লাইটে হাজিরা দেশে ফিরেছেন। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পরিচালিত ৬৩টি, সৌদিয়া এয়ারলাইন্স পরিচালিত ৪৯টি ও ফ্লাইনাস এয়ারলাইন্স পরিচালিত ৫টি ফ্লাইট রয়েছে। আইটি হেল্পডেস্ক জানিয়েছে, সৌদি আরবে মোট ২৫ জন বাংলাদেশি হজযাত্রী ইন্তেকাল করেছেন।

হজের বুলেটিনে জানানো হয়েছে, গত ৮ জুলাই সৌদি আরবে হজ অনুষ্ঠিত হয়। ৫ জুন থেকে ৫ জুলাই পর্যন্ত ১৬৫টি ফ্লাইটে বাংলাদেশ থেকে সৌদি আরবে যান ৬০ হাজার ১৪৬ জন হজযাত্রী (ব্যবস্থাপনা সদস্যসহ)।

সরকারি ব্যবস্থাপনায় যাওয়া দশম ফ্লাইটের হাজিরা আগামী ২ আগস্ট বাংলাদেশে ফিরবেন। হাজিরা এখন মদিনায় অবস্থান করছেন। তারা মসজিদে নববীতে ৪০ ওয়াক্ত নামাজ আদায় এবং রাসূল (স.) এর রওজা মোবারক জিয়ারতসহ বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থান যেমন- মসজিদে কুবা, মসজিদ আল কিবলাতাইন, ওহুদ ও খন্দকের প্রান্তরসহ বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান ভ্রমণ করছেন।



আরও খবর

শিরক থেকে দূরে থাকতে হবে

বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

মৃতদের জন্য জীবিতদের করণীয়

বৃহস্পতিবার ১৮ আগস্ট ২০২২




কবে আসছে জয়ার ‘বিউটি সার্কাস’?

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৮৯জন দেখেছেন
Image

গত বছরের ১৯ মার্চ বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছিল জয়া আহসান অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ‘অলাতচক্র’। এরপর অতনু ঘোষ পরিচালিত ‘বিনিসুতোয়’ ও সায়ন্তন মুখার্জি পরিচালিত ‘ঝরা পালক’ কলকাতায় মুক্তি পায়। আবারও দেশের পর্দায় দেখা দেবেন জয়াকে। ‘বিউটি সার্কাস’-এ ভর করে তিনি দেখাবেন আবহমান বাংলার সংস্কৃতি ও জীবনবৈচিত্রের চিত্র।

সিনেমাটিতে জয়া আহসানের বিপরীতে দেখা যাবে ফেরদৌস আহমেদ, তৌকীর আহমেদ ও এবিএম সুমনকে। এতে আরও অভিনয় করেছেন শতাব্দী ওয়াদুদ, গাজী রাকায়েত, মনিসা অর্চি প্রমুখ।
 
শোনা যাচ্ছে, আগামী মাসে ছবিটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে। তবে চূড়ান্ত তারিখ কবে তা নিয়ে মুখ খুলছেন না নির্মাতা মাহমুদ দিদার, অভিনেত্রী জয়া আহসান কিংবা সহ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ইমপ্রেস টেলিফিল্ম।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ‘বিউটি সার্কাস’। এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি সেরে ফেলেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম। যদিও এই প্রসঙ্গে এখনই আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দিতে চান না সংশ্লিষ্টরা। এক পোস্টার প্রকাশের মধ্যে এই তারিখ জানানো হবে বলে ইমপ্রেস টেলিফিল্মে একটি সূত্রে জানা গেছে।

সিনেমাটি প্রসঙ্গে নির্মাতা মাহমুদ দিদার বলেন, ‘এটি একটি বহুল প্রতীক্ষিত চলচ্চিত্র। বাংলাদেশের আবহমান সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ সার্কাস শিল্পকে ঘিরে এক নারীর রোমাঞ্চকর লড়াইয়ের গল্প নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্রটি নানা চড়াই উতরাই পেরিয়ে মুক্তির মিছিলে এসে দাঁড়িয়েছে।’

দীর্ঘ প্রস্তুতি ও অর্থ সংকট কাটিয়ে সরকারি অনুদান পাওয়া ‘বিউটি সার্কাস’ চলচ্চিত্রটিতে দুইশত জনের নির্মাণ সঙ্গী নিয়ে প্রায় দুই হাজার গ্রামবাসীর অংশগ্রহণে চিত্রধারণের কাজ করেন নির্মাতা। এর জন্য নির্মাতা বিশাল সার্কাস প্যান্ডেল নির্মাণ ও গ্রাম্য-মেলার আয়োজন করেন।

সিনেমার গল্পে দেখা যাবে, সার্কাসের মালিক ও প্রধান নারী যাদুশিল্পী বিউটি। তার যাদু প্রদর্শনীর কারিশমা আর রূপে পাগল এলাকার তিন প্রভাবশালী ব্যক্তি। বিউটিকে নিজের করে পাবার প্রতিযোগিতায় নামে তারা। এতে এক সময় হুমকির মুখে পড়ে যায় পুরো বিউটির সার্কাসটি। কিন্তু কৌশলী বিউটি হাল ছাড়বার পাত্রী নয়। বুদ্ধির জোরে সে শেষ পর্যন্ত কাটিয়ে ওঠে গভীর সংকট।



আরও খবর

যৌনপল্লীতে নায়িকা নিপুণ আক্তার !

বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন ডেপুটি স্পিকার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
Image

সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করলেন মহান সংসদের নব নির্বাচিত ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকু।

আজ মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) সকালে জাতীয় স্মৃতিসৌধের শহীদ বেদীতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। সেখানে কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি। শ্রদ্ধা নিবেদনের পর পরিদর্শন বইয়ে স্বাক্ষর করেন তিনি।

সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রশাসনের কর্মকর্তা ছাড়াও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। একাদশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার হিসেবে রবিবার (২৮ আগস্ট) শপথ নিয়েছেন পাবনা-১ আসনের সংসদ সদস্য শামসুল হক টুকু। সংসদ ভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান। 

এর আগে, ওই দিন বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদের ১৯তম অধিবেশনের শুরুতেই কণ্ঠভোটে নতুন ডেপুটি স্পিকার নির্বাচিত হন টুকু। প্রয়াত ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার স্থলাভিষিক্ত হলেন তিনি।



আরও খবর

২২ দিন ইলিশ ধরা-বিক্রি নিষিদ্ধ

বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




মুখোমুখি ভারত-পাকিস্তান, ক্রিকেট মাঠে মহাযুদ্ধ আজ

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯৬জন দেখেছেন
Image

এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ১৫তম আসরের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচে আজ রবিবার মুখোমুখি হচ্ছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান। এ দুই দেশের লড়াইটা বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যাদাকর হিসেবেই পরিচিতি লাভ করেছে। এই মর্যাদার লড়াইয়ে জিততে মুখিয়ে থাকে দু’দলই। তাই প্রতিবারই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে থাকে বাড়তি উন্মাদনা। এবারো এর ব্যতিক্রম নয়। টুর্নামেন্টে এ’ গ্রুপে দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় মুখোমুখি হবে ভারত ও পাকিস্তান।

দুই দলের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ বন্ধ হওয়ার পর ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের আবেদন যেন আরও বেড়েছে। বিশ্বকাপ, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, এশিয়া কাপের মতো আসরে তাই ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচ মানেই গোটা ক্রিকেট বিশ্বে বাড়তি রোমাঞ্চ। দুই দলের এবারের লড়াই দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। এই ভেন্যুতে ব্যাটার ও বোলারদের ভারসাম্য থাকে প্রতিটি ম্যাচেই। বাউন্ডারি ছোট বলে ব্যাটাররা দ্রুত রান তোলার কথা ভাববেন, এটাই স্বাভাবিক। তবে ছেড়ে কথা বলবেন না বোলাররাও। নতুন বলে পেসাররা গতি ও বাউন্স দিয়ে নাভিশ্বাস তুলতে পারেন ব্যাটারদের। আবার স্পিনাররা মাঝখানের ওভারগুলোতে বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারেন যেকোনো দলের বিপক্ষে।

একাদশ সাজাতে তাই রোহিত শর্মা ও বাবর আজমের দলকে বেশ মুন্সিয়ানার পরিচয় দিতে হবে। সেক্ষেত্রে দলের সেরা খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতি ভোগাবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকেই। চোটের কারণে ভারত এই ম্যাচে পাচ্ছে না পেসার জাসপ্রিত বুমরাহকে। একইভাবে পাকিস্তান পাচ্ছে না তাদের সেরা পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদিকে। দুই মূল হাতিয়ার ছাড়া কেমন হতে পারে দুই দলের একাদশ, তা নিয়ে চলছে জল্পনাকল্পনা।

দুবাইয়ে ইতোমধ্যে মুহূর্তের অনুশীলন করেছেন ভারত ও পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। অনুশীলনের ফাঁকে পরস্পরের সঙ্গে করমর্দন করছেন দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের ক্রিকেটাররা। ইনজুরিতে শেষ মুহূর্তে এশিয়া কাপ থেকে সরে দাঁড়ান বাঁহাতি পেসার শাহীন আফ্রিদি। বাঁহাতি পেসার না থাকায় পাকিস্তানের পেস অ্যাটাকের শক্তি কমেছে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু দলকে উৎসাহ দিতে দুবাইয়ে হাজির হয়েছেন তিনি। অনুশীলন শেষে আফ্রিদি করমর্দনে শুভকামনা জানিয়েছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। শুধু আফ্রিদি নন, পাকিস্তানে অধিনায়ক বাবর আজম, লেগ স্পিনার শাদাব খানরাও শুভকামনা জানিয়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটারকে।

তবে ভারত-পাকিস্তান লড়াইকে শুধুমাত্র একটি ‘ম্যাচ’ বলেই মনে করেন দুই দলের বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটাররা। তাদের মতে, এটি অন্যান্য ম্যাচের মতই। তবে চাপ অনুভব করেন দলে থাকা ক্রিকেটাররা। বাড়তি চাপ থাকায়, মর্যাদার লড়াইয়ে জিততে মরিয়া ভারত ও পাকিস্তান। ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন, সকলেই এই ম্যাচের দিকে তাকিয়ে থাকে। খুব চাপের ম্যাচ এটি, তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। তবে দলের পরিবেশ হালকা পরিবেশ রাখতে চাই। এই ম্যাচ নিয়ে খুব ভেবে নিজেদের চাপে ফেলতে চাই না। যারা কোনো দিন পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলেনি বা মাত্র একটি-দুটি ম্যাচে খেলেছে, তাদের ভালো করে এই ম্যাচের গুরুত্ব বোঝাতে চাই। আমরা পাকিস্তানকে অন্য যে কোনো সাধারণ বিপক্ষের মতোই দেখছি। তবে ম্যাচ জিতেই মাঠ ছাড়ার লক্ষ্য আমাদের।

রোহিতের সুরে কথা বলেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজমও। তিনি বলেন, অন্যান্য ম্যাচের মত হলেও, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে বাড়তি চাপ এমনতিতেই চলে আসে। এই চাপকে সামলেই লড়াই করতে হয় ক্রিকেটারদের। কারণ সকলেই জানে, এমন ম্যাচের গুরুত্ব কত বেশি। তাই জয়ের জন্য মুখিয়ে থাকে ক্রিকেটাররা। এবারো আমরা জয়ের জন্য মাঠে নামবো।

এদিকে, দুই ক্রিকেট পরাশক্তির টি-২০ ম্যাচ নিয়ে উন্মাদনার সৃষ্টি হয়েছে দুবাইসহ গোটা বিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে। এই ম্যাচ দিয়ে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের মিশন শুরু হবে রোহিত শর্মার ভারত ও বাবর আজমের পাকিস্তানের। দুবাইয়ে দুই দল সর্বশেষ টি-২০ ম্যাচ খেলেছিল গত অক্টোবরে। টি-২০ বিশ্বকাপের ওই ম্যাচে ভারতকে ১০ উইকেটের আকাশসমান ব্যবধানে হারিয়েছিল পাকিস্তান। সেই ম্যাচে শাহীন শাহ আফ্রিদির বিধ্বংসী বোলিংয়ে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৫১ রান করেছিল ভারত। মোহাম্মদ রিজওয়ানের ৭৯ ও বাবরের ৬৩ রানে ভর করে পাকিস্তান ম্যাচটি জিতেছিল ১৩ বল হাতে রেখে। 

অবশ্য দুই দেশের পরিসংখ্যানের বিচারে এগিয়ে রোহিত শর্মার ভারত। ৯ ম্যাচের ৬টিতে জিতেছেন রোহিতরা এবং বাবরের পাকিস্তানের জয় ২টি। ২০০৭ সালে প্রথম টি-২০ বিশ্বকাপে দুই দল প্রথম খেলেছিল টি-২০ ম্যাচ। ‘টাই’ ম্যাচটি ‘বোল আউট’ পদ্ধতিতে জিতেছিল ভারত। এশিয়া কাপে দুই দল একবার খেলেছে পরস্পরের বিপক্ষে। ২০১৬ সালে মিরপুর স্টেডিয়ামে ম্যাচটি ভারত জিতেছিল ৫ উইকেটে।

অন্যদিকে, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচকে আড়াল করে সব আলো কেড়ে নিয়েছেন কোহলি। ছন্দহীন ভারতীয় ড্যাসিং ক্রিকেটার যেন রানে ফিরেন ক্রিকেটপ্রেমীদের মতো পাকিস্তানের ক্রিকেটাররাও চাইছেন। আফ্রিদি করমর্দন শেষে বলেন, ‘আপনি আবার রানে ফিরুন। এটাই প্রার্থনা করছি।’ পাকিস্তানের লেগ স্পিনার শাদাব খান বলেন, ‘বিরাট কোহলি সেঞ্চুরি করুন। তবে নিশ্চিত করে সেটা আমাদের বিপক্ষে নয়। অন্য দলের বিপক্ষে।’ 

আদিকে, আজ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচে যদি আজ নামেন ভারতীয় সাবেক এই অধিনায়ক, তাহলে নতুন একটি মাইলফলক গড়বেন। অধিনায়ক রোহিতের পর দ্বিতীয় ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে টি-২০ ক্রিকেটে ১০০ ম্যাচ খেলার মাইলফলক গড়বেন তিনি। ১৩২ ম্যাচের ১২৪ ইনিংসে রোহিতের রান ৪ সেঞ্চুরি ও ২৭ হাফসেঞ্চুরিতে ৩৪৮৭ রান। কোহলি ৯৯ ম্যাচের ৯১ ইনিংসে ৩০ হাফসেঞ্চুরিতে রান করেছেন ৩৩০৮।   

প্রসঙ্গত, আফগানিস্তান ও শ্রীলঙ্কা ম্যাচ দিয়ে শনিবার (২৭ আগস্ট) শুরু হয়েছে এশিয়া কাপ। অক্টোবর-নভেম্বর টি-২০ বিশ্বকাপকে সামনে রেখে এবারের এশিয়া কাপের খেলাগুলো হচ্ছে টি-২০ ফরম্যাটে। 


আরও খবর

এশিয়া কাপ শেষে দেশে ফিরলো টাইগাররা

শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২




রুপকথার গল্প হতে চলছে পটুয়াখালীতে বাঁশের চাঁই দিয়ে মাছ শিকারের ফলে

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৭৬জন দেখেছেন
Image

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ  পটুযাখালীতে বাঁশের চাঁই দিয়ে মাছ শিকারের ফলে দেশী প্রজাতির মাছ রুপকথার গল্পেরমত হতে চলছে। এতে বিভিন্ন প্রজাতির দেশী মাছের পোনা ও মাছ উৎপাদন কমে যাচ্ছে। গ্রাম-গঞ্চে বাঁশের তৈরী চাঁই জলাশয়ে পেতে মাছের বংশ নষ্ট করছে অসাধু জেলেরা। 

অন্যদিকে বিভিন্ন খালে ও ডোবায় অধিক হারে কীটনাষক ব্যবহারের কারনে মাছের বংশ বিস্তার করতে পারছেনা। এসব অবৈধ চাঁই প্রতিরোধ করতে না পারলে দেশীয় প্রজাতির মাছ উৎপাদন কমে যাবে। তবুও থেমে নেই  মাছ শিকারে অসাধু জেলেরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দশমিনা উপজেলায় বিভিন্ন হাট-বাজারে অবৈধ ভাবে বাঁশের তৈরী চাঁই বিক্রি করে থাকে স্থানীয় ও সুবিধাভোগী ব্যবসায়ীরা। বৈশাখ থেকে ভাদ্র মাসের শেষ পর্যন্ত উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের ধানীজমি ও খাল-বিল, ডোবা-নালাতে বাশেঁর চাঁই পেতে বিভিন্ন প্রজাতির পোনা মাছ ও মাছ শিকার করা হচ্ছে। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী মাছ শিকারের জন্য ব্যবহারিত  নিয়ম কানুন না মেনে অবৈধ ভাবে চাই পেতে মাছ শিকাওে মেতে উঠেছে অসাধু জেলেরা। 

এসকল অসাধু জেলেরা দুইসুতাঁ পরিমান ফাঁকা রেখে বাশেঁর চাঁই তৈরী করে ব্যবহার  করছে। ফলে দেশীয় প্রজাতির মাছের বংশ নষ্ট করছে। আর দেশীয় মৎস্য প্রজনন কমে যাচ্ছে। অন্য দিকে এ অঞ্চলের মানুষের মাছের আকাল দিন দিন বেড়েই চলছে। এমতাবস্থায় বাঁশের চাঁই ব্যবহার দ্রুত বন্ধ না করলে ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে দেশীয় মাছের রুপকথার গল্পেরমত থেকে যাবে।

চাঁই দিয়ে মাছ শিকারকারী মো. ইউনিুছ খা বলেন, কিস্তি এনে আগে রাস্তায় গাড়ি চালাইতাম যাত্রী কম থাকায় বাধ্য হয়ে বাজার থেকে বাঁশের চাঁই কিনে এনেছি। ৬জনের সংসারের খরচ চালাতে এ পথে নামছি। না খেয়ে কয়দিন থাকতে পারি। খালে-বিলে ও ডোবায় পেতে মাছ শিকার করে বাজারে কিংবা মাছের আড়ৎতে বিক্রি করে কোন রকম সংসার চালাই। এ উপজেলায় এরকম কয়েক শ’ চাঁই দিয়ে মাছ শিকার করে সংসার চালায় ।

এ ব্যাপারে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মাহাবুব আলম তালুকদার বলেন, বাশেঁর চাঁই দিয়ে মাছ শিকারের কারনে এ অঞ্চলের দেশী বিভিন্ন প্রজাতির মাছ উৎপাদন কমে যাচ্ছে। তবে এ বাঁশের চাই গুলো অপসারনের লক্ষে উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে এবং খালগুলোতে অভিযান পরিচালনা করা হবে।


আরও খবর

বিষখালীর হঠাৎ ভাঙনে ছয় দোকান বিলীন

মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২




রায়গঞ্জে স্কুল ছাত্র রাশিদুল হত্যার রহস্য উদযাটন

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৮১জন দেখেছেন
Image

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি : সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্র রাশিদুল ইসলাম হত্যাকান্ডের
রহস্য উদ্ঘাটন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই)। এ ঘটনায়
এক নারীসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞসাবাদে রেরিয়ে এসেছে
হত্যাকান্ডের রহস্য। যাত্রী বেশে  অটোরিক্সা, সিএনজি, ইজিবাইক ভাড়া করে
সুবিধা জনক স্থানে চালককে হত্যা করে অটোরিক্সা, সিএনজি, ইজিবাইক ছিনতাই
করে নিয়ে যাওয়ায় তাদের উদ্দেশ্য।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলো, রায়গঞ্জের লাঙ্গলমোড়া গ্রামের ফরিদুল ইসলাম (৩৪)
ও আবুল কালাম (৩৩), গোপিনাথপুর গ্রামের সুখী খাতুন (৪৮) ও সদর উপজেলার
পশ্চিম গাড়াদহ গ্রামের হাসেন নবী (৩০)। এর আগে জাহিদুল ও আব্দুল লতিফ
নামে আরও দুই যুবককে আটক করে পিবিআই সদস্যরা।

সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিলেকেল সিরাজগঞ্জ পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের
(পিবিআই) পুলিশ সুপার রেজাউল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পিবিআই জানায়, ২০২২ সালের (১৯ মে) সকালে স্কুলছাত্র
রাশিদুল ইসলাম তার বড় ভাইয়ের ব্যাটারি চালিত অটোভ্যান নিয়ে রায়গঞ্জ
উপজেলার ধামাইনগর বাজারে যাওয়ার পর আর ফিরে আসেনি। এ ঘটনায় তার বড় ভাই
তরিকুল ইসলাম রায়গঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

২৪ মে দুপুরে সলঙ্গা থানার ইসলাদি ঘর গ্রামে একটি বাঁশঝাড়ের ভেতর থেকে
রাশিদুলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় অজ্ঞাতনামা আসামি করে
নিহতের ভাই মামলা দায়ের করেন। এই মামলাটি পুলিশের পাশাপাশি পিবিআই টিম
ছায়া তদন্ত করতে থাকে। মামলার তদন্ত চলাকালে পিবিআই সদস্যরা জাহিদুল ও
আব্দুল লতিফ নামে দুই যুবককে আটক করে। পরে তাঁদের তথ্যের ভিত্তিতে
অটোভ্যান উদ্ধার করা হয়।

পরবর্তীতে এই মামলা তদন্তের জন্য পিবিআইকে নির্দেশ দেন আদালত। তদন্তকালে
৩০ আগস্ট নুরুন হোসেন নবী নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করে
পিবিআই। তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই দিন আবুল কালাম ও ফরিদুল ইসলামকে
গ্রেফতার করা হয়। তারা স্কুলছাত্র রাশিদুল ইসলাম হত্যার সঙ্গে জড়িত বলে
আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পরে তাঁদের দেওয়া
তথ্যের ভিত্তিতে পাবনা জেলার আমিনপুর থানার চকভরিয়া গ্রাম থেকে
স্কুলছাত্রের ব্যবহৃত মোবাইল উদ্ধার ও ১ সেপ্টেম্বর কথিত প্রেমিকা সুখী
খাতুনকে গ্রেফতার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার ব্যক্তিরা জানান, তারা সংঘবদ্ধ চুরি, ডাকাতি,
ছিনতাই দলের সক্রিয় সদস্য। তারা বিভিন্ন সময় স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে
যাত্রীবেশে অটোরিক্সা, সিএনজি, ইজিবাইক ভাড়া করে সুবিধাজনক স্থানে চালককে
হত্যা করে ছিনতাই করে নিয়ে যান। গত ১৮ মে গ্রেফতার ব্যক্তিরা রায়গঞ্জের
ভুইয়াগাতী বাজারে চায়ের দোকানে বসে হত্যার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনা
মোতাবেক স্কুলছাত্র রাশিদুল ইসলামকে হত্যা করে সলঙ্গা থানার ইসলাদি ঘর
গ্রামে একটি বাঁশ ঝাড়ের ভেতর তাঁর মরদেহ রেখে অটোভ্যান নিয়ে পালিয়ে যান।


আরও খবর