Logo
আজঃ রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২
শিরোনাম

নেত্রকোনার বারহাট্টায় পানির নিচ থেকে কৃষকের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৮৮জন দেখেছেন
Image
সোহেল খান দূর্জয়: নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলার আসমা ইউনিয়নের মইরাতলা বিলের পানির নিচ থেকে বুধবার সকালে আব্দুছ ছাত্তার (৫৫) নামে এক কৃষকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত ছাত্তার উপজেলার ছোট-কৈলাটী গ্রামের মগল খাঁ’র ছেলে। তিনি মঙ্গলবার রাতে ওই বিলে নিজের জমিতে চাষের মাছ পাহাড়া দিতে গিয়ে নিখোঁজ হন। 

এলাকাবাসিসূত্রে জানা যায়, মৃত ছাত্তার ছোট-কৈলাটী গ্রামের পার্শ্ববর্তী জয়কৃষ্ণনগর মৌজার মইরাতলা বিলে নিজস্ব-জমির প্রায় প্রায় দুই একর জায়গাজুড়ে বিভিন্ন জাতের মাছের চাষ করে আসছিলেন। চাষের এই মাছ রাতের বেলা এক শ্রেণীর লোকজন ধরে নিয়ে যায়। মৃত ছাত্তার ওইসব লোকদের মাছ ধরতে বিভিন্ন সময় নিষেধ করতেন। তার নিষেধ না মানায় তিনি মাছ রক্ষার জন্য প্রতি রাতেই পাহাড়া দিতেন। সর্বশেষ তিনি মঙ্গলবার (০৮ নভেম্বর) রাত আটটার দিকে মাছ রক্ষা করতে বিলে যান। গভীর রাত পর্যন্ত তিনি বাড়ি ফিরে আসেন নাই। পরে খোঁজাখুঁজি করে স্থানীয়রা মইরাতলা বিলে একটি খইনের (এক প্রকার পুকুর) পানির নিচে তার লাশের সন্ধান পেয়ে পুলিশে খবর দেন। মৃত ছাত্তারের মুখ ও গলাসহ শরিরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলেও অভিযোগ অনেকের। 

বারহাট্টা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ লুৎফুল হক বলেন, ছাত্তারের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার তাৎক্ষণিকভাবে কারণ জানা যায় নাই।


আরও খবর



চারঘাটে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা-২০২২ উদযাপন উপলক্ষে প্রেস বিফিং

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৮১জন দেখেছেন
Image

চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ “উদ্ভাবনী জয়োল্লাসে র্স্মাট বাংলাদেশ” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক অর্জনসমূহ প্রচারের লক্ষ্যে চারঘাট উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে  আগামী ১০ই নভেম্বর দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা-২০২২ উদযাপন উপলক্ষে উপজেলা নির্বাহী (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা মানজুরা মুশাররফ সভাপতিত্বে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে প্রেস বিফিং এর আয়োজন করা হয়।

বুধবার ১২টার দিকে উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়্। এসময় বক্তব্য রাখেন চারঘাট প্রেসক্লাবের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাচ্চু,সাধারন সম্পাদক ময়েন উদ্দিন পিন্টু, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোজাম্মেল হকসহ স্থানীয় সকল সাংাদিকবৃন্দ।

প্রেস বিফিং বলেন, আগামী ১০ই নভেম্বর দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ¦ শাহরিয়ার আলম এমপি।


আরও খবর



হরিপুরে জমি নিয়ে বিরোধে কুলসুম নামে একজন মর্মান্তিকভাবে জখম

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ১৩১জন দেখেছেন
Image

জয়নাল আবেদিন: হরিপুরে জমি নিয়ে বিরোধে কুলসুম নামে একজনকে হাসুয়া এবং কোদাল দিয়ে গলায় এবং কানে আঘাত করে মর্মান্তিকভাবে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা । গলা এবং কানে তাতে কিছু অংশ কেটে  গিয়ে প্রচুর রক্তক্ষরন হয়ে হরিপুর হাসপাতালে ভর্তি হয়।

তাদের বাড়ি হরিপুর উপজেলার ১নং গেদুরা ইউনিয়নের পঁচাঘুড়িয়া গ্রামের শেখার মোরে।

জানা গেছে দুর্বৃত্ত সলিম,সাহেদ গোলজান দেশিয় অস্থ নিয়ে কুলসুম সহতার পরিবারের লোকজনের উপর আক্রমণ করে এলোপাথারি ভাবে মারপিট করে এবং হাসুয়া দিয়ে কোপ দেয়।পরে স্থানিয় লোকজন এসে তাদের রক্ষা করে।

এই ব্যাপারে হরিপুর থানায় একটি এজহার করা হয় বলে হরিপুর থানার অসি মোঃ তাজুল ইসলাম  বিষয়টি নিশ্চিত  করেন।


আরও খবর



গুণীর গুনগান না গাইলে দেশে গুণীজন সৃষ্টি হয় না, সেনাপ্রধান এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
Image
মাহফুজুল ইসলাম মন্নু,লোহাগড়া প্রতিনিধিঃ দেশের শিক্ষার মান উন্নয়নে শিক্ষকদের পাশাপাশি  অভিভাবকদের এগিয়ে আসতে হবে। শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। মেধাবী শিক্ষার্থীরাই কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে প্রাধান্য পাবে। এলাকার উন্নয়নে রাজনীবিদদের পাশাপাশি শিক্ষিত মানুষদের এগিয়ে আসতে হবে। চাকুরীর প্রত্যাশায় না থেকে মেধাবী শিক্ষার্থীদের মেধা কাজে লাগিয়ে দেশের উন্নয়নে মনোনিবেশ করতে হবে। তবেই দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি ত্বরান্বিত হবে। গুণীর গুনগান না গাইলে দেশে গুণীজন সৃষ্টি হয় না। এজন্য গুণীজনদের যথাযথ সম্মান করতে হবে।
 
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ মঙ্গলবার(৮অক্টোবর) সকাল ১১টায় নড়াইলের লোহগড়া উপজেলার মল্লিকপুর ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবের কার্যক্রম ও বীরমুক্তিযোদ্ধা মরহুম অধ্যাপক এস এম রোকন উদ্দিন আহমেদ এর নামে চারতলা ভবনের উদ্বোধন আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।

বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে প্রবীণ সমাজসেবক আলহাজ¦ এলাহী মোল্যার সভাপতিত্বে ও শিক্ষার্থী কাজী আরিফুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন মল্লিকপুর ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো: মহসিন উদ্দিন, ইউপি সদস্য মো: এমদাদুল হক মল্লিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: সাইফুর রহমান।

 এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নড়াইলের জেলা প্রশাসক মো: হাবিবুর রহমান, নড়াইল জেলা আ’লীগের  সভাপতি ও নড়াইল জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আজগর আলী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুন্সী আলাউদ্দিন, লোহাগড়া পৌর মেয়র ও উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ মসিয়ুর রহমান, মল্লিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো: শহিদুর রহমান , সাবেক চেয়ারম্যান শিকদার মোস্তফা কামাল, সাবেক জেলা পরিষদ সদস্য সাজ্জাদ হোসেন মুন্না সহ প্রমুখ।

সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ মুক্তিযোদ্ধাদের জাতির শ্রেষ্ট সন্তান আখ্যায়িত করে বলেন, তাঁদের জন্যই দেশ আজ স্বাধীন। জীবন বাজি রেখে তাঁরা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল বলেই আজ আমরা একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছি। তাদের অবদান জাতি কৃতজ্ঞতা চিত্তে স্বরণ করবে।
 
 সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ এলাকার সমস্যা ও সম্ভাবনার বিষয়ে আরও বলেন, মধুমতি নদীর ভাঙ্গন রোধে স্থায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।  জনগুরুত্বপূর্ণ সড়ক সংস্কার ও নির্মাণ করা হবে। সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ তার পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম অধ্যাপক এস এম রোকন উদ্দিন আহমেদ এর নামে একটি শিক্ষা ট্রাষ্ট চালু করা হবে বলে ঘোষণা দেন। সেই ট্রাষ্ট থেকে অসহায় ও মেধাবীরা প্রতিবছর শিক্ষাবৃত্তি পাবে।

এর আগে সেনাপ্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ ও তার স্ত্রী নুরজাহান আহমেদ সড়ক পথে পদ্মা ও মধুমতি সেতু পার হয়ে লোহাগড়ার মধুমতি আর্মি ক্যাম্পে পৌঁছান। এ সময় যশোর ৫৫ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মো: মাহাবুবুর রহমান, পদ্মা বহুমুখী রেল প্রকল্পের প্রধান সমন্বয়ক মেজর জেনারেল মো: রেজাউল মজিবসহ উদ্ধর্তন সেনা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এরপর এলাকাবাসী সেনাপ্রধানের স্ত্রী নুরজাহান আহমেদকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন।

এরপর তিনি মধুমতি নদী পাড়ের পৈত্রিক ভিটায় তার পিতার নামে ১০ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যাণ হাসপাতাল নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন। মধুমতি আর্মি ক্যাম্পে দুপুরের খাবার শেষে তিনি সরকারি লোহাগড়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও সরকারি লোহাগড়া আদর্শ মহাবিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। বিকাল ৪টার দিকে তিনি স্বস্ত্রীক লোহাগড়া ত্যাগ করেন।

আরও খবর

এক দিনের সফরে যশোরে প্রধানমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার ২৪ নভেম্বর ২০২২




খেরসনে যুদ্ধাপরাধ করেছে রাশিয়া: জেলেনস্কি

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৬২জন দেখেছেন
Image

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি দাবি করেছেন, রাশিয়ার সেনারা খেরসনে যুদ্ধাপরাধ করেছে। তিনি জানান, রুশ সেনাদের দখলকৃত খেরসনে প্রায় চার শতাধিক যুদ্ধাপরাধ সংঘটিত হয়েছে। তদন্তকারীদের অনুসন্ধানে এই তথ্য উদঘাটিত হয়েছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, রাশিয়া ও ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর থেকে ইউক্রেনের বুচা, ইজিয়াম ও মারিউপোলে গণকবর পাওয়া গেছে। এই নৃশংসতার জন্য রাশিয়ান সেনাদের দায়ী করেছে ইউক্রেন। 

তবে এখন পর্যন্ত বিবিসি এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করতে পারেনি। অভিযোগ অস্বীকার করে মস্কো জানিয়েছে, মস্কোর সেনারা ইচ্ছাকৃতভাবে কোনও সাধারণ নাগরিককে হত্যা করেনি।

খেরসন স্বাধীন হয়ে গেলেও ইউক্রেন কর্তৃপক্ষ শহরটিতে কারফিউ জারি করেছেন। খেরসনে যাওয়া আসা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এক ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কি জানান, রুশ সেনারা দেশের যেসব অঞ্চলে প্রবেশ করেছে সেখানেই নৃশংসতা করেছে। তারা খেরসনেও এই একই কাজ করে গেছে। তারা অবশ্যই এসব হত্যাকাণ্ডের বিচার করবেন।

ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেন আগ্রাসনের পর খেরসনই একমাত্র অঞ্চল যা দীর্ঘদিন ধরে রুশ সেনাদের দখলে ছিলো। গত সেপ্টেম্বরে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন ক্রেমলিনের একটি অনুষ্ঠানে খেরসনসহ আরও তিনটি অঞ্চলকে রাশিয়ার ভূখণ্ড বলে দাবি করেন। কিন্তু শুক্রবার (১১ নভেম্বর) খেরসনকে ইউক্রেন সেনারা স্বাধীন করেছেন।

প্রায় ৩০ হাজার রাশিয়ান সেনাকে অপসারণ করার পর খেরসনের অফিসিয়াল কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তবে অনেকের মনে আশঙ্কা রয়েছে, কিছু সংখ্যক রাশিয়ান সেনা এখনো ছদ্মবেশে ইউক্রেনে লুকিয়ে থাকতে পারে।

এ বিষয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট জানান, রাশিয়ার সেনাদের আটক করা হয়েছে। তবে যারা এসব নৃশংসতার পেছনে আছেন তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। ইউক্রেনের সেনারা ইন্টারনেট ও টিভি সংযোগ করার জন্য কাজ করছেন। যতদ্রুত সম্ভব পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে।



আরও খবর



ঝালকাঠির রাজাপুরে প্রতারণার মাধ্যমে জমি বিক্রি, প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৭৪জন দেখেছেন
Image

কঞ্জন কান্তি চক্রবর্তী,ঝালকাঠি  প্রতিনিধি:  ঝালকাঠির রাজাপুরে প্রতারণার মাধ্যমে ভুয়া কাগজ তৈরি করে জমি বিক্রি’র প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী জমির প্রকৃত মালিকগন।

মঙ্গলবার সকালে রাজাপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন ভুক্তভোগী ও তাদের পরিবারের সদস্য’রা সংবাদ সম্মেলনে শহিদুল ইসলাম বলেন, রাজাপুর ৪৭ নং মৌজার বিভিন্ন দাগে আমাদের ৬৭ শতাংশ সম্পত্তি রয়েছে। এই সম্পত্তির সাড়ে ২৭শতাংশে মালিক ছিলো মৃত আতাহার আলী খাঁনের স্ত্রী মৃত রোকেয়া খাতুন। তিনি তার সম্পত্তির চেয়েও বেশী আনুমানিক ৪০ বছর আগে বিক্রি করেছে।

বর্তমানে আমি সহ আমাদের নিকট আত্মীয় মৃত মোঃ মানিক খাঁন, মোঃ গোল ফুক্কুর খাঁন,রিজিয়া বেগম ,মোঃ আবু কালাম খাঁন দলিল ও ওয়ারিশ মূলে সম্পত্তির বর্তমানে প্রকৃত মালিক।

বর্তমানে তার ছেলে মোঃ ইউনুস খাঁন প্রতারণার মাধ্যমে ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে দুই খানা দলিলের (যার নং-২৩৯০,২৩৯১) মাধ্যেমে ১৮.৮৩ শতাংশ সম্পত্তি রাজাপুর উপজেলা সদরের ২ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মোঃ আল আমিন খাঁনে’র কাছে বিক্রি করেছেন। আল আমিন খাঁন উপজেলা সদরের ২ নং ওয়ার্ড জালিয়াপাড়া এলাকার মৃত আলতাফ হোসেন খাঁনের ছেলে।

মোঃ ইউনুস খাঁন যে ১৮.৮৩ শতাংশ সম্পত্তি ভুয়া কাগজ পত্রের মাধ্যমে বিক্রি করেছেন সেই সম্পত্তির কিছু অংশের ওয়ারিশ সুত্রে এবং কিছু অংশরে ত্রুয় সূত্রে বর্তমান মালিক আমরা। আমার বাগান বাড়ীতে (ঐ সম্পত্তিতে) কৃষিকাজে ব্যবহৃতযন্ত্রপাতি,সার ও কিটনাশক রাখার জন্য একটি টিনসেট ঘর ছিলো যে ঘরটি বর্তমানে ইউপি সদস্য আল আমিন খাঁন লোকজন নিযে রাতের আধারে দখলে নেয়। তাতে আমরা বাঁধা দিলে আমাদের প্রাণ নাশের হুকমি দেয়।

অবশেষে নিরুপায় হইয়া আমরা বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করি। বিষয়টি আমলে নিয়ে মহামান্য আদালত ঐ সম্পত্তির উপর নোটিশ জারি করে। কিন্তু আল আমিন খাঁন আদালতের নির্দেশ অমান্য করে অবৈধ ভাবে তার জোরপূর্বক দখলকৃত সম্পত্তিতে লোকজন নিয়ে বসবাস করতেছেন।

ডি.পি ১৮৬৯ নং খতিয়ানে মোট সম্পত্তির পরিমান ৫ শতাংশ যাহার প্রকৃত মালিক, মোঃ গোলফুক্কর খাঁন, মোঃ মনিক খাঁন, মোঃ হারুন হাওলাদার। কিন্তু মোঃ ইউনুস খাঁন আমাদের ডি.পি নম্বর দিয়ে আমাদের সকলের এস.এ ও বি.এস দাগ বসিয়ে টাকার বিনিময়ে ভুয়া বি.এস পর্চা তৈরি করে এবং দাখিলা কেটে সম্পত্তি আল আমিনের কাছে বিক্রি করেন।

ভুয়া কাগজে দিয়ে আমাদের সম্পত্তি যাহাতে তাদের নামে না করে নিতে পারে সে জন্য আপনাদের লেখুনির মাধ্যমে মহামন্য আদালত,বরিশাল জোনাল সেটেলমেন্ট অফিস এবং উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার অফিস কতৃপক্ষ সহ সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষের সু-দৃস্টি কামনা করছি।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগীরা এবং রাজাপুর প্রেস ক্লাব সভাপতি সহ জেলা ও উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর