Logo
আজঃ সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
শিরোনাম

অপরিশোধিত তেলের দাম বেড়েছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১৬৬জন দেখেছেন
Image

গত সপ্তাহে অপরিশোধিত তেলের দাম কমার পর মঙ্গলবার দাম ১ শতাংশ বেড়েছে। আজ এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে রয়টার্স। মন্দার কারণে অপরিশোধিত তেল ও জ্বালানি পণ্যে চাহিদা কমার চেয়ে বিনিয়োগকারীরা এর সরবরাহ সংকুচিত হওয়ার বিষয়টি নিয়ে বেশি উদ্বিগ্ন।

প্রতি ব্যারেল ব্রেন্ট ক্রুডের দাম ১ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১৫.২১ ডলারে। এর আগে সোমবার বেড়েছিল ০.৯ শতাংশ। গত সপ্তাহে ব্রেন্ট ক্রুডের দাম কমেছিল ৭.৩ শতাংশ।

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট (ডব্লিউটিআই) ক্রুড প্রতি ব্যারেলের দাম ২.২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১২.০১ ডলার। গত সপ্তাহে এর দাম কমেছিল ৯.২ শতাংশ।


আরও খবর



ছাত্রলীগের বিবাহিত অছাত্র ও মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১৭৯জন দেখেছেন
Image

কাশিয়ানী প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের বিবাহিত অছাত্র ও মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

আজ মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কাশিয়ানী উপজেলার এম,এ খালেক বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভিপি মোর্শেদুল আলমের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি উপজেলা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে কাশিয়ানী জেলা পরিষদের ডাক বাংলোর সামনে গিয়ে শেষ হয়।

পরে সেখানে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সম্পাদক আরিফুল শিকদার, কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রাকিব মুন্সি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক তুহিন মুন্সি, এম,এ খালেক বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক সভাপতি ইয়াসিন আরাফাত সুমন বক্তব্য রাখেন।


এসময় বক্তরা বলেন, ছাত্রলীগের কমিটির মেয়াদ থাকে ১ বছর। কিন্তু দীর্ঘ ৭ বছরে কোন কমিটি হয়নি। কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি আজাদ হোসেন মৃধা বিবাহিত। কিন্তু ছাত্রলীগে বিবাহিতদের থাকার কোন সুযোগ নেই। দ্রুত বিবাহিতদের বাদ দিয়ে নতুন কমিটি দেয়ার দাবি জানান তারা।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিউটন মোল্যার সাথে যোগযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার সাথে যোগাযোগ না হওয়ায় বক্তব্য পাওয়া সম্ভব হয়নি।


আরও খবর



‘লোহাগড়ার মানুষ কখনো বেঈমানি করেন না’-মাশরাফি

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ২৬জন দেখেছেন
Image

মাহফুজুল ইসলাম মন্নু,লোহাগড়া প্রতিনিধিঃ নড়াইল জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোসকে বিজয়ী করতে লোহাগড়া উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপি। লোহাগড়াস্থ নিরিবিলি পিকনিক স্পষ্ট মিলনায়তনে শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নড়াইল-২ আসনের সাংসদ মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেন, লোহাগড়ার মানুষ কখনো বেঈমানি করেন না। যে কোনো সমস্যা বা উন্নয়নের ক্ষেত্রে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ সবাই মিলেমিশে কাজ করেন। আশা করি জেলা পরিষদ নির্বাচনেও জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোসকে বিজয়ী করতে লোহাগড়ার জনপ্রতিনিধিরা সবাই ঐক্যমত থেকে কাজ করবেন। সুবাস দাদু প্রবীণ রাজনীতিবিদ। ৭৫ বছর বয়সে নির্বাচনের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আমরা তাকে বিজয়ী করব। লোহাগড়ার জনপ্রতিনিধি তথা ভোটাররা বেঈমানি করবেন না, এটা আমি বিশ্বাস করি।

লোহাগড়া উপজেলা আ’লীগের সভাপতি মুন্সী আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন-জেলা আ’লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী সুবাস চন্দ্র বোস, দলের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন খান নিলু, জেলা পরিষদের বিদায়ী চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, জেলা আ’লীগের সহসভাপতি নড়াইল পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা, সৈয়দ মোহাম্মদ আলী, সৈয়দ আইয়ুব আলী, লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সিকদার আব্দুল হান্নান রুনু, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও লোহাগড়া পৌর মেয়র সৈয়দ মসিয়ুর রহমান, সিনিয়র সহসভাপতি ফয়জুল হক রোম, কাশিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান, ইতনা ইউপি চেয়ারম্যান সিহানুক রহমানসহ অনেকে।

মতবিনিময় সভায় লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং মেম্বারসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এ সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন-সংগঠনের খুলনা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক।  

এসময় উপস্থিত ছিলেন নড়াইল-১ আসনের এমপি কবিরুল হক মুক্তি, নড়াইল-২ আসনের এমপি মাশরাফি বিন মর্তুজাসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।

প্রসঙ্গত, আগামি ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নড়াইলে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, বিদ্রোহী প্রার্থী লোহাগড়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ ফয়জুল আমির লিটু এবং আ’লীগ নেতা জেলা পরিষদের বর্তমান প্রশাসক সুলতান মাহমুদ বিপ্লব। 

আরও খবর



সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে ডেমরায় সমাবেশ ও চার থানা কমিটি ঘোষণা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৫৯জন দেখেছেন
Image

মাহমুদ হাসান প্রান্তঃ সোমবার বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের রাজধানীর ওয়ারী জোনের আওতাধীন ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টার মাঠে আয়োজিত সাংবাদিক নির্যাতন ও সুরক্ষা আইন প্রণয়নের দাবিতে আয়োজিত আলোচনা সভায় আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আহমেদ আবু জাফর। তিনি সরকারকে সাংবাদিক সুরক্ষা আইন প্রণয়ণসহ ১৪ দফা দাবি বাস্তবায়ন করতে জোড়ালো আহবান জানান। দেশে অহরহ সাংবাদিক নির্যাতন ঘটনা যেন থামছেইনা। সাংবাদিক সুরক্ষা আইন না থাকায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন। 

উদ্বোধনী বক্তব্যে রাখেন অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মো. শফিকুল ইসলাম সাদ্দাম যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম, কেন্দ্রীয় কমিটি। সদস্য সচিব সেলিম নিজামির সভাপতিত্বে, প্রধান অতিথি ছিলেন এশিয়ান টিভির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ (সিআইপি)। বিশেষ অতিথি ছিলেন ডেমরা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শফিকুর রহমান, ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ৬৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান পলিন, চিত্রনায়ক যুবরাজ খান, বিএমএসএফের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবুল খায়ের খান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ খায়রুল আলম,সদস্য আমির হোসেন, পূর্বাঞ্চল সাংবাদিক ইউনিটির সভাপতি ওমর ফারুক জালাল, স্বাস্থ্য এন্ড পরিবেশ মানবাধিকার সাংবাদিক সোসাইটির চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম খান, শরিফুল ইসলাম বিপ্লব।


অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক মুন্সি মোঃ আল ইমরান, রফিকুল ইসলাম, রেজাউল করিম,  মোঃ সাইফুল ইসলাম পারভেজ, রেভা খান, সুমন খান,  মনির হোসেন, সভায় নেতৃবৃন্দ সারাদেশে সাংবাদিকদের ওপর অব্যাহত হামলা, নির্যাতন, জেল জরিমানার নীল নকশার কালো আইন বাতিল, সাংবাদিক সুরক্ষা আইন প্রণয়নসহ ১৪ দফা দাবি বাস্তবায়নে সরকার এবং গণমাধ্যম মালিকদেরকে আন্তরিক হওয়ার আহবান জানানো হয়।

সমাবেশে ওয়ারী জোনের ৪টি থানার কমিটি ঘোষণার মধ্য দিয়ে সাংবাদিকদের মাঝে একটি বৃহৎ ঐক্যের সুচনা করা হয়। যাত্রাবাড়ী থানা কমিটির সর্বসম্মতিক্রমে সভাপতি  মোঃ সাইফুল ইসলাম পারভেজ ও সাধারণ সম্পাদক মুন্সি আল ইমরান নির্বাচিত হন, শ্যামপুর থানার সভাপতি মোঃ সহিদুল ইসলাম জনি সাধারণ মোঃ মনির নির্বাচিত হন। ডেমরা থানার সভাপতি সেলিম নিজামী ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, কদমতলী থানার সভাপতি অ্যাডভোকেট মহিউদ্দিন  ও ইঞ্জিনিয়ার হাসান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

সমাবেশ শেষে বিভিন্ন শিল্পীর অংশগ্রহনে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।



আরও খবর



মুখোমুখি ভারত-পাকিস্তান, ক্রিকেট মাঠে মহাযুদ্ধ আজ

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯৬জন দেখেছেন
Image

এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ১৫তম আসরের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচে আজ রবিবার মুখোমুখি হচ্ছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান। এ দুই দেশের লড়াইটা বিশ্ব ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যাদাকর হিসেবেই পরিচিতি লাভ করেছে। এই মর্যাদার লড়াইয়ে জিততে মুখিয়ে থাকে দু’দলই। তাই প্রতিবারই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে থাকে বাড়তি উন্মাদনা। এবারো এর ব্যতিক্রম নয়। টুর্নামেন্টে এ’ গ্রুপে দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় মুখোমুখি হবে ভারত ও পাকিস্তান।

দুই দলের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ বন্ধ হওয়ার পর ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের আবেদন যেন আরও বেড়েছে। বিশ্বকাপ, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, এশিয়া কাপের মতো আসরে তাই ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচ মানেই গোটা ক্রিকেট বিশ্বে বাড়তি রোমাঞ্চ। দুই দলের এবারের লড়াই দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। এই ভেন্যুতে ব্যাটার ও বোলারদের ভারসাম্য থাকে প্রতিটি ম্যাচেই। বাউন্ডারি ছোট বলে ব্যাটাররা দ্রুত রান তোলার কথা ভাববেন, এটাই স্বাভাবিক। তবে ছেড়ে কথা বলবেন না বোলাররাও। নতুন বলে পেসাররা গতি ও বাউন্স দিয়ে নাভিশ্বাস তুলতে পারেন ব্যাটারদের। আবার স্পিনাররা মাঝখানের ওভারগুলোতে বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারেন যেকোনো দলের বিপক্ষে।

একাদশ সাজাতে তাই রোহিত শর্মা ও বাবর আজমের দলকে বেশ মুন্সিয়ানার পরিচয় দিতে হবে। সেক্ষেত্রে দলের সেরা খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতি ভোগাবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকেই। চোটের কারণে ভারত এই ম্যাচে পাচ্ছে না পেসার জাসপ্রিত বুমরাহকে। একইভাবে পাকিস্তান পাচ্ছে না তাদের সেরা পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদিকে। দুই মূল হাতিয়ার ছাড়া কেমন হতে পারে দুই দলের একাদশ, তা নিয়ে চলছে জল্পনাকল্পনা।

দুবাইয়ে ইতোমধ্যে মুহূর্তের অনুশীলন করেছেন ভারত ও পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। অনুশীলনের ফাঁকে পরস্পরের সঙ্গে করমর্দন করছেন দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের ক্রিকেটাররা। ইনজুরিতে শেষ মুহূর্তে এশিয়া কাপ থেকে সরে দাঁড়ান বাঁহাতি পেসার শাহীন আফ্রিদি। বাঁহাতি পেসার না থাকায় পাকিস্তানের পেস অ্যাটাকের শক্তি কমেছে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু দলকে উৎসাহ দিতে দুবাইয়ে হাজির হয়েছেন তিনি। অনুশীলন শেষে আফ্রিদি করমর্দনে শুভকামনা জানিয়েছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। শুধু আফ্রিদি নন, পাকিস্তানে অধিনায়ক বাবর আজম, লেগ স্পিনার শাদাব খানরাও শুভকামনা জানিয়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটারকে।

তবে ভারত-পাকিস্তান লড়াইকে শুধুমাত্র একটি ‘ম্যাচ’ বলেই মনে করেন দুই দলের বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটাররা। তাদের মতে, এটি অন্যান্য ম্যাচের মতই। তবে চাপ অনুভব করেন দলে থাকা ক্রিকেটাররা। বাড়তি চাপ থাকায়, মর্যাদার লড়াইয়ে জিততে মরিয়া ভারত ও পাকিস্তান। ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন, সকলেই এই ম্যাচের দিকে তাকিয়ে থাকে। খুব চাপের ম্যাচ এটি, তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। তবে দলের পরিবেশ হালকা পরিবেশ রাখতে চাই। এই ম্যাচ নিয়ে খুব ভেবে নিজেদের চাপে ফেলতে চাই না। যারা কোনো দিন পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলেনি বা মাত্র একটি-দুটি ম্যাচে খেলেছে, তাদের ভালো করে এই ম্যাচের গুরুত্ব বোঝাতে চাই। আমরা পাকিস্তানকে অন্য যে কোনো সাধারণ বিপক্ষের মতোই দেখছি। তবে ম্যাচ জিতেই মাঠ ছাড়ার লক্ষ্য আমাদের।

রোহিতের সুরে কথা বলেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজমও। তিনি বলেন, অন্যান্য ম্যাচের মত হলেও, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে বাড়তি চাপ এমনতিতেই চলে আসে। এই চাপকে সামলেই লড়াই করতে হয় ক্রিকেটারদের। কারণ সকলেই জানে, এমন ম্যাচের গুরুত্ব কত বেশি। তাই জয়ের জন্য মুখিয়ে থাকে ক্রিকেটাররা। এবারো আমরা জয়ের জন্য মাঠে নামবো।

এদিকে, দুই ক্রিকেট পরাশক্তির টি-২০ ম্যাচ নিয়ে উন্মাদনার সৃষ্টি হয়েছে দুবাইসহ গোটা বিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে। এই ম্যাচ দিয়ে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের মিশন শুরু হবে রোহিত শর্মার ভারত ও বাবর আজমের পাকিস্তানের। দুবাইয়ে দুই দল সর্বশেষ টি-২০ ম্যাচ খেলেছিল গত অক্টোবরে। টি-২০ বিশ্বকাপের ওই ম্যাচে ভারতকে ১০ উইকেটের আকাশসমান ব্যবধানে হারিয়েছিল পাকিস্তান। সেই ম্যাচে শাহীন শাহ আফ্রিদির বিধ্বংসী বোলিংয়ে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৫১ রান করেছিল ভারত। মোহাম্মদ রিজওয়ানের ৭৯ ও বাবরের ৬৩ রানে ভর করে পাকিস্তান ম্যাচটি জিতেছিল ১৩ বল হাতে রেখে। 

অবশ্য দুই দেশের পরিসংখ্যানের বিচারে এগিয়ে রোহিত শর্মার ভারত। ৯ ম্যাচের ৬টিতে জিতেছেন রোহিতরা এবং বাবরের পাকিস্তানের জয় ২টি। ২০০৭ সালে প্রথম টি-২০ বিশ্বকাপে দুই দল প্রথম খেলেছিল টি-২০ ম্যাচ। ‘টাই’ ম্যাচটি ‘বোল আউট’ পদ্ধতিতে জিতেছিল ভারত। এশিয়া কাপে দুই দল একবার খেলেছে পরস্পরের বিপক্ষে। ২০১৬ সালে মিরপুর স্টেডিয়ামে ম্যাচটি ভারত জিতেছিল ৫ উইকেটে।

অন্যদিকে, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচকে আড়াল করে সব আলো কেড়ে নিয়েছেন কোহলি। ছন্দহীন ভারতীয় ড্যাসিং ক্রিকেটার যেন রানে ফিরেন ক্রিকেটপ্রেমীদের মতো পাকিস্তানের ক্রিকেটাররাও চাইছেন। আফ্রিদি করমর্দন শেষে বলেন, ‘আপনি আবার রানে ফিরুন। এটাই প্রার্থনা করছি।’ পাকিস্তানের লেগ স্পিনার শাদাব খান বলেন, ‘বিরাট কোহলি সেঞ্চুরি করুন। তবে নিশ্চিত করে সেটা আমাদের বিপক্ষে নয়। অন্য দলের বিপক্ষে।’ 

আদিকে, আজ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচে যদি আজ নামেন ভারতীয় সাবেক এই অধিনায়ক, তাহলে নতুন একটি মাইলফলক গড়বেন। অধিনায়ক রোহিতের পর দ্বিতীয় ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে টি-২০ ক্রিকেটে ১০০ ম্যাচ খেলার মাইলফলক গড়বেন তিনি। ১৩২ ম্যাচের ১২৪ ইনিংসে রোহিতের রান ৪ সেঞ্চুরি ও ২৭ হাফসেঞ্চুরিতে ৩৪৮৭ রান। কোহলি ৯৯ ম্যাচের ৯১ ইনিংসে ৩০ হাফসেঞ্চুরিতে রান করেছেন ৩৩০৮।   

প্রসঙ্গত, আফগানিস্তান ও শ্রীলঙ্কা ম্যাচ দিয়ে শনিবার (২৭ আগস্ট) শুরু হয়েছে এশিয়া কাপ। অক্টোবর-নভেম্বর টি-২০ বিশ্বকাপকে সামনে রেখে এবারের এশিয়া কাপের খেলাগুলো হচ্ছে টি-২০ ফরম্যাটে। 


আরও খবর

এশিয়া কাপ শেষে দেশে ফিরলো টাইগাররা

শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২




সারা বিশ্বে দুর্ভিক্ষের পদধ্বনি, মিতব্যয়ী হোন: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৭৮জন দেখেছেন
Image

কোভিডের অভিঘাত, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ও রাশিয়াকে ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্রের অবরোধ আরোপের কারণে বিশ্বজুড়ে দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে বলে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এমন বাস্তবতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাশ্রয়ী হওয়া, মিতব্যয়িতা ও খাদ্য উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছেন তিনি। ঢাকার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার সকালে ইনস্টিটিউট অফ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের ২৪তম জাতীয় সম্মেলন এবং ৪৩তম কাউন্সিল অধিবেশনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে গণভবন প্রান্ত থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন সরকারপ্রধান।শেখ হাসিনা বলেন, আজকে যে সারা বিশ্বে একটা দুর্ভিক্ষের পদধ্বনি আমরা দেখতে পাচ্ছি, এর প্রভাব থেকে দেশের মানুষকে বাঁচাতে হবে। তাই এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে। যার পক্ষে যা সম্ভব, তা যেন উৎপাদন করে।

ছাদবাগানের প্রতি উৎসাহিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেখানে যদি কিছু উৎপাদন করা যায়, তাহলে বাজারের ওপর চাপ কম পড়বে। তিনি বলেন, আবারও বলব, উৎপাদন বাড়ানোর দিকে সবাই সক্রিয় হোন, যাতে বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দার ধাক্কায় বাংলাদেশের মানুষ কষ্ট না পায়। আমাদের ব্যবস্থা আমাদের নিজেদের করে নিতে হবে।

‘এখন থেকে আমাদের সবাইকে কৃচ্ছ্রসাধন করতে হবে। সঞ্চয় করতে হবে। কোনো কিছুতেই যেন আমরা অতিরিক্ত ব্যয় না করি, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। কারণ বিশ্বের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি দিনে দিনে এত খারাপের দিকে যাচ্ছে, আপনি যুক্তরাষ্ট্র বলেন, ইউরোপ বলেন, ইংল্যান্ড বলেন প্রতিটি জায়গায় কিন্তু…আজকে সেখানে তারা বিদ্যুৎ দিতে পারছে না, পানির ব্যবহার সীমিত করে দিতে নির্দেশ দিচ্ছে।

চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এখন থেকে প্রস্তুতি নিতে হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।



আরও খবর

২২ দিন ইলিশ ধরা-বিক্রি নিষিদ্ধ

বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২