Logo
আজঃ সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
শিরোনাম

রাজবাড়ীতে রাফি হত্যা মামলার ২ আসামী বিদেশী পিস্তল সহ গ্রেফতার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৫৩জন দেখেছেন
Image

সৈকত শতদল ( রাজবাড়ী ) প্রতিনিধি: রাজবাড়ীতে দু’টি বিদেশী পিস্তলসহ হত্যা মামলার দুই আসামি গ্রেফতার চাঞ্চল্যকর আরিফুল ইসলাম রকি (২৭) হত্যা মামলার দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত

দু’টি বিদেশী পিস্তল, পাঁচটি খালি কার্তুজ ও দুইটি কার্তুজের মাথার অংশ উদ্ধার করা হয়। সোমবার সকালে পুলিশ সুপার সম্মেলকক্ষে রাজবাড়ী জেলা পুলিশ সুপার এম.এম. শাকিলুজ্জামান এ তথ্য জানান।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- রাজবাড়ী সদর উপজেলার চরখানখানাপুর গ্রামের নাজিমদ্দিন শেখের ছেলে রাকিব শেখ (৩৪) ও কুষ্টিয়া সদর উপজেলার দহকুলা গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে ইয়ামিন

আলী (২২)। সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার এম.এম. শাকিলুজ্জামান জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে গত শনিবার সন্ধ্যায় রাজবাড়ী সদরের খানখানাপুর সুরাজ মোহিনী ইনস্টিটিউটের সামনে আরিফুল ইসলাম রকিকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় রোববার নিহত রকির বাবা রাজ্জাক শেখ ১৬ জনকে আসামি করে রাজবাড়ী সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তিনি আরো জানান, চলতি বছরের গত ৪মার্চ চরখানখানাপুর গ্রামে রাকিব শেখ নামে এক যুবকের হাতের কবজি কেটে বিচ্ছিন্ন করে প্রতিপক্ষ। ওই ঘটনায় রাকিবের বড় ভাই নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ১৬জনের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় প্রধান আসামী ছিলেন আরিফুল ইসলাম রকি। ওই মামলায় গ্রেফতার হয়ে রকি দীর্ঘদিন জেল হাজতে ছিলো। স¤প্রতি সে জামিনে বের হয়।


আরও খবর



বন্যায় ধুঁকছে পাকিস্তান, লাখ লাখ মানুষের আজাহারি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৭৯জন দেখেছেন
Image

পাকিস্তানে ভয়াবহ বন্যার তাণ্ডব অব্যাহত রয়েছে। দেশটির বিভিন্ন প্রদেশে বন্যার পরিস্থিতির তেমন উন্নতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। উল্টো এই পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হয়েছে। 

পাকিস্তানের একাধিক সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বন্যায় এখন পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা এক হাজার ১৩৬ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছে শতাধিক। এতে তিন কোটিরও বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।  

জুন থেকে শুরু হওয়া বন্যা লাখো মানুষকে ঘরছাড়া করেছে। এই পরিস্থিতিতে জনগণকে সহায়তায় পাকিস্তান সরকার তার ক্ষমতার সর্বোচ্চটাই করছে। বন্যায় বিপর্যস্ত দেশটি আন্তর্জাতিক সহায়তা পেতে বিভিন্ন সংস্থা ও রাষ্ট্রের কাছে আবেদন জানিয়েছে। ইতোমধ্যে পাকিস্তানের সাহায্যের আবেদনের প্রেক্ষিতে সাড়া দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও অন্য কয়েকটি দেশ। 

পাকিস্তানের ন্যাশনাল ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটির (এনডিএমএ) প্রকাশিত তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭ শিশু ও ১৭ জন নারীসহ সর্বমোট ৭৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এছাড়াও আহত হয়েছে ৫৯ জন। এনডিএমএ জানিয়েছে, বন্যায় ১০ লাখেরও বেশি বাড়ি ধ্বংস হয়েছে।

এনডিএমএর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সংখ্যা বেড়ে তিন কোটিতে দাঁড়িয়েছে। সিন্ধু প্রদেশের ২৩টি জেলায় এক কোটি ৪০ লাখ মানুষ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 

এছাড়াও বেলুচিস্তানের ৩১টি জেলায় ৯০ লাখ, পাঞ্জাবের ৩টি জেলায় ৪৮ লাখ ও খাইবার পাখতুনখোয়ার ৯টি জেলায় ৪৪ লাখের মতো মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।



আরও খবর



২২ দিন ইলিশ ধরা-বিক্রি নিষিদ্ধ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৮১জন দেখেছেন
Image

আগামী ৭ অক্টোবর থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ২২ দিন সারাদেশে উৎপাদন বাড়াতে ও ডিম ছাড়ার সুযোগ দিতে ইলিশ আহরণ বন্ধ থাকবে। এসময় দেশব্যাপী ইলিশ আহরণ, বিপণন, ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন, মজুদ ও বিনিময় নিষিদ্ধ থাকবে। 

আজ বৃহস্পতিবারমৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. ইফতেখার হোসেন এ তথ্য জানান। তিনি জানান, ইলিশের নিরাপদ প্রজননের লক্ষ্যে ৭ থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ আহরণ, পরিবহন, ক্রয়-বিক্রয়, মজুদ ও বিনিময় নিষিদ্ধ থাকবে।

প্রসঙ্গত, ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে ‘প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ অ্যাক্ট, ১৯৫০’ এর অধীন প্রণীত ‘প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ রুলস, ১৯৮৫’ অনুযায়ী এই ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করেছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

এই ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় দণ্ডনীয় অপরাধ। আইন অমান্যকারী কমপক্ষে ১ থেকে সর্বোচ্চ ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড অথবা পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবে।


আরও খবর

এসএসসির প্রথম দিনের পরীক্ষা শেষ হলো

বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




ফুলবাড়ীতে সামাজিক সম্প্রীতি কমিটি'র আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৬৯জন দেখেছেন
Image

ফুলবাড়ী(দিনাজপুর) প্রতিনিধি: সারাদেশে উপজেলা পর্যায়ে সামাজিক সম্প্রীতি কমিটি গঠনের পর দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে গত মঙ্গলবার বেলা ১২ টায় উপজেলা সভা কে উপজেলা প্রসাশনের আয়োজনে প্রথমবারের মতো সামাজিক সম্প্রীতি কমিটি'র সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রিয়াজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে সামাজিক সম্প্রীতি কমিটি'র সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো.আতাউর রহমান মিল্টন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিরু সামছুন্নাহার ও উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি শামীমা আক্তার জাহান।

এসময় উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সহসভাপতি অধ্য মিজানুর রহমান,সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুল,ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মো.আশ্রাফুল ইসলাম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ শমসের মন্ডল,উপজেলা প্রাথমিক শিা অফিসার মোছাঃ হাসিনা ভুইয়া, সমাজসেবা কর্মকর্তা মো.আখতারুজ্জামান,মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রিতা মন্ডল, ফুলবাড়ী প্রেসকাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ফুলবাড়ী রিপোর্টাস ইউনিটির সভাপতি মোঃ হারুন-উর-রশীদসহ ইউ,পি চেয়ারম্যান,বীরমুক্তিযোদ্ধা,শিক,জনপ্রতিনিধি,এনজিও এর প্রতিনিধি,পরিবহন শ্রমিকদের নেতৃবৃন্দ,শিার্থী ও উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



শিরক থেকে দূরে থাকতে হবে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

শিরক একটি আরবি শব্দ যার অর্থ অংশ। ইসলামী পরিভাষায় সর্বশক্তিমান আল্লাহতায়ালার সঙ্গে কাউকে শরিক করা, কাউকে তাঁর সমকক্ষ ভাবা কিংবা অংশীদার করাকে শিরক বলে।

এটি একটি জঘন্য অপরাধ এবং কবিরা গুনাহ। মহান সর্বশক্তিমান আল্লাহতায়ালা শিরককে বড় মিথ্যা এবং জুলুম বলে আখ্যায়িত করেছেন। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের হাদিসে বলা হয়েছে- আল্লাহ তার বান্দার যে কোনো গুনাহকে ক্ষমা করে দেন। কিন্তু শিরকের গুনাহকে ক্ষমা করেন না। আমাদের সমাজে আল্লাহতায়ালার সঙ্গে বিভিন্নভাবে এবং বিভিন্ন পন্থায় শিরক করা হয়ে থাকে। মানুষ পাথর, অগ্নি, গাছ ও কবর পূজা ইত্যাদির মাধ্যমে শিরক করে। তা ছাড়া ব্যবসা-বাণিজ্য, চাকরি-বাকরি, বিবাহশাদি, রোগ-শোক, আয়-রোজগার ইত্যাদির ক্ষেত্রেও বিভিন্নভাবে এবং বিভিন্ন পন্থায় শিরক করা হয়। শিরক চার ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে। ১. আল্লাহর মূল সত্তায় শিরক, ২. আল্লাহর গুণাবলিতে শিরক, ৩. আল্লাহর অধিকারে শিরক, ৪. আল্লাহর এখতিয়ারে শিরক। পবিত্র কোরআনে শিরকের পরিণাম সম্পর্কে সতর্ক করে বলা হয়েছে- এটি একটি ক্ষমাহীন অপরাধ।

ইরশাদ করা হয়েছে, ‘নিশ্চয়ই আল্লাহ তাকে ক্ষমা করেন না, যে তার সঙ্গে কাউকে শরিক করে। এ ছাড়া যাকে ইচ্ছা ক্ষমা করেন এবং কেউ আল্লাহর সঙ্গে শরিক করলে সে ভীষণভাবে পথভ্রষ্ট হয়। তারা তার পরিবর্তে শুধু দেবীরই পূজা করে এবং বিদ্রোহী শয়তানের পূজা করে।’ (৪-সুরা নিসা : ১১৬-১১৭)। যারা আল্লাহ ব্যতীত অন্য কাউকে উপাস্য হিসেবে মানে তারা পথভ্রষ্ট। ইরশাদ করা হয়েছে- স্মরণ কর, যখন ইবরাহিম তার পিতা আজরকে বললেন : ‘তুমি কি প্রতিমাগুলোকে উপাস্য মনে কর? আমি দেখতে পাচ্ছি যে, তুমি ও তোমার সম্প্রদায় প্রকাশ্য পথভ্রষ্ট।’ (৬ সুরা আনয়াম : ৭৪)। আল্লাহ মানুষকে সৃষ্টি করেছেন তার ইবাদতের জন্য। শিরকমুক্ত ইবাদতের মাধ্যমে বান্দা আল্লাহর সন্তুষ্টি বিধান করতে পারে।

সর্বশেষ ও শ্রেষ্ঠ নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নির্দেশিত পথে আল্লাহর ইবাদত করতে হবে। হজরত আদম (আ.)-এর মাধ্যমে দুনিয়ার বুকে প্রথম নবীর আগমন, মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের আগমনের মাধ্যমে পৃথিবীতে নবী রসুলের আগমন পর্বের সমাপ্তি টানা হয়েছে। মহানবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের পর পৃথিবীতে আর কোনো নবী আসবেন না। তিনি হলেন বিশ্ববাসীর জন্য মনোনীত নবী।

কেয়ামত পর্যন্ত যত মানুষ পৃথিবীতে আসবে তারা তার উম্মতের মধ্যেই গণ্য হবে। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আল্লাহর পথে মানুষকে ডাকার এ মহান জিম্মাদারি তার উম্মতের মধ্যে যারা কোরআন হাদিসের জ্ঞানে জ্ঞানী তাদের ওপর দিয়েছেন। মহানবীর আগে যে হাজার হাজার নবী রসুল এসেছেন তাদের বিশেষ সম্প্রদায়ের নবী রসুল হিসেবে পৃথিবীতে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু আখেরি নবীর আগমন ঘটেছে সমগ্র মানবজাতির জন্য। ইরশাদ করা হয়েছে- ‘হে নবী আমি তোমাকে সারা বিশ্বের জন্য রহমত হিসেবে প্রেরণ করেছি।’ (২১ সুরা আম্বিয়া : ১০৭)।


আরও খবর

মৃতদের জন্য জীবিতদের করণীয়

বৃহস্পতিবার ১৮ আগস্ট ২০২২

শোকের মাস মহররম

বৃহস্পতিবার ১১ আগস্ট ২০২২




আহ্বায়ক কমিটি গঠন সভাপতি মোঃ সাইফুল ইসলাম পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক মুন্সি মোঃ আল ইমরান"

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯৪জন দেখেছেন
Image

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) যাত্রাবাড়ি থানা শাখার আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে । ১২ ই সেপ্টেম্বর সোমবার বিকেল ৪.০০ ঘটিকায় ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টারের মাঠে অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় ১১ সদস্য বিশিষ্ট এ আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এশিয়ান গ্রুপের কর্নধার আলহাজ্ব হারুন অর রশীদ সিআইপি।

সভায় উদ্বোধক ছিলেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম এর ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আহমেদ আবু জাফর সে সময় তিনি সরকারকে সাংবাদিক সুরক্ষা আইন প্রনয়ণসহ ১৪ দফা বাস্তবায়ন করতে জোড়ালো আহবান জানান এবং দেশে অহরহ সাংবাদিক নির্যাতন যেনো থামছেই না সাংবাদিক সুরক্ষা আইন না থাকায় এমন পরিস্থিতির সৃস্টি হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন। উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মো. শফিকুল ইসলাম সাদ্দাম যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম, কেন্দ্রীয় কমিটি। সদস্য সচিব সেলিম নিজামির সভাপতিত্বে,

সভায় উপস্থিত সকল সাংবাদিকদের সর্বসম্মতিক্রমে দৈনিক দিন প্রতিদিন এর সহকারী সম্পাদক  মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম পারভেজ সভাপতি,দৈনিক বর্তমান দেশ বাংলার সম্পাদক মোহাম্মদ হেলাল সহ-সভাপতি,  চ্যানেল ২৩ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুন্সি মো: আল ইমরান সাধারণ সম্পাদক, সাপ্তাহিক তথ্য বানী এর সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার মোঃ শরিফুল হক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, দৈনিক আলোর দিগন্ত এর স্টাফ রিপোর্টার মোঃআকাশ সিকদার অর্থ সম্পাদক ,বিডি লাইভ ২৪ এর চেয়ারম্যান মোঘল হোসেন সম্রাট সাংগঠনিক সম্পাদক,দৈনিক দিন প্রতিদিন এর রিপোর্টার মুন্নি আক্তার তিশা দপ্তর সম্পাদক,  এশিয়ান টিভি এর স্টাফ রিপোর্টার অমর রঞ্জন মজুমদার প্রচার সম্পাদক ,রুপান্তর টিভি এর চীফ ক্রাইম রিপোর্টার খাদিজা আক্তার আনিকা নারী বিষয়ক সম্পাদিকা ,চ্যানেল ২৩ এর প্রতিনিধি তানিয়া সুলতানা রিভা সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক,বর্তমান দেশ বাংলা এর মোঃ শিপন নির্বাহী সদস্য।


আরও খবর