Logo
আজঃ সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
শিরোনাম
আসন্ন ঝালকাঠি জেলা পরিষদ নির্বাচন

দোয়া চেয়ে ফেসবুকে সরব রাজাপুরের ১৬ প্রার্থী

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৮৩জন দেখেছেন
Image

কঞ্জনকান্তি চক্রবর্তী, ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠি জেলা পরিষদের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই শুরু হয়েছে নির্বাচনী তৎপরতা। ফেসবুকে সয়লাব প্রার্থী-ইচ্ছুকদের ছবিসহ সমর্থকদের পোস্ট। জেলা পরিষদে সাধারণ সদস্য হতে রাজাপুর থেকে এখন পর্যন্ত আওয়ামী লীগের আগ্রহী ১৬ প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। তবে আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য কোনো দলের প্রার্থী-ইচ্ছুক কারো নাম দেখা যাচ্ছে না।

ঝালকাঠির রাজাপুর থেকে পুরুষদের মধ্যে সদস্য প্রার্থী হতে আগ্রহী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন: ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি এ্যাড.সঞ্জীব কুমার বিশ্বাস, রাজাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড.খায়রুল আলম সরফরাজ,উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোঃ মুজিবুর রহমান মৃধা, উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক , দ্রæত বিচার ট্রাইব্যুানাল-০১ ঢাকা এর সাবেক পি.পি ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোঃ আলমগীর হোসেন সিকদার, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ এর যুগ্ম আহবায়ক মোঃ নাসির মৃর্ধা, উপজেলার মঠবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৩য় মেয়াদের সাধারণ সম্পাদক , উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মোঃ আনোয়ার হোসেন মৃধা মজিবর, ইউপি সদস্য ও বাংলাদেশ মেম্বার কল্যান এসোসিয়েশন রাজাপুর উপজেলা শাখা’র সভাপতি মোঃ তরিকুল ইসলাম তারেক, সাতুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুস সোবাহান খান, সহ-সভাপতি মোঃ ইকবাল বিশ^াস। এবং রাজাপুর ও কাঠাঁলিয়ার নারী সদস্য হিসেবে ইতি মধ্যেই রাজাপুর উপজেলা থেকে আগ্রহী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন: বাংলাদেশ যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ইয়াসমীন আক্তার পপি, রাজাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য ও ২ নং শুক্তাগড় ইউপি চেয়ারম্যান বিউটি সিকদার, নারী ইউপি সদস্য ও বাংলাদেশ মেম্বার কল্যান এসোসিয়েশন বেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোসা ঃ ছালমা বেগম,উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী ,সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য মোসাঃ  সামিরা আক্তার,  উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজনীন পাখি মৃধা, উপজেলা যুব মহিলা লীগের নেত্রী শাহানাজ লিপি, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী সোনিয়া রহমান প্রমুখ।

আগ্রহী প্রার্থীদের মধ্যে অনেকেই বলেন, ‘আমাদের রাজনৈতিক অভিভাবক আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান নেতা ঝালকাঠি-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ আমির হোসেন আমু। তিনি একজন বিচক্ষণ রাজনৈতিক ব্যক্তি। সকল সিদ্ধান্তের জন্য আমরা তার নির্দেশের অপেক্ষায় থাকি । তবে আমাদের প্রার্থী হওয়ার বিষয়টিও তার এবং দলীয় সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর কবরে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর, মনোনয়ন বাছাই ১৮ সেপ্টেম্বর, বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল করা যাবে ১৯ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর, আপিল নিষ্পত্তি ২২ থেকে ২৪ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ ২৬ সেপ্টেম্বর এবং ১৭ অক্টোবর ভোটগ্রহন। এ নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন জেলা প্রশাসক।


আরও খবর

বিষখালীর হঠাৎ ভাঙনে ছয় দোকান বিলীন

মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২




চারঘাটে সমমানের পরীক্ষা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ২৬জন দেখেছেন
Image

চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধি: সারাদেশের ন্যায় রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় এসএসসি,ভোকেশনাল ও দাখিল সমমানের পরীক্ষা শান্তিপূর্ণভাবে ও নকলমুক্ত পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় উপজেলার ৯টি কেন্দ্রে এসএসসি ২ হাজার ১২জন, দাখিল ২শ ৪৪ জন, ভোকেশনাল ও দাখিল ৮ শ ১৩ জন বাংলা প্রথমপত্রে মোট ৩ হাজার ৬৯ জন শিক্ষার্থী এই পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেন। 

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহরাব হোসেন প্রতিটিি কেন্দ্রে পরিদর্শন করে জানান, সুষ্ঠু,সুন্দর ও নকলমুক্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 



আরও খবর



ছাত্রলীগের বিবাহিত অছাত্র ও মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১৭৯জন দেখেছেন
Image

কাশিয়ানী প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের বিবাহিত অছাত্র ও মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

আজ মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কাশিয়ানী উপজেলার এম,এ খালেক বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভিপি মোর্শেদুল আলমের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি উপজেলা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে কাশিয়ানী জেলা পরিষদের ডাক বাংলোর সামনে গিয়ে শেষ হয়।

পরে সেখানে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সম্পাদক আরিফুল শিকদার, কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রাকিব মুন্সি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক তুহিন মুন্সি, এম,এ খালেক বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক সভাপতি ইয়াসিন আরাফাত সুমন বক্তব্য রাখেন।


এসময় বক্তরা বলেন, ছাত্রলীগের কমিটির মেয়াদ থাকে ১ বছর। কিন্তু দীর্ঘ ৭ বছরে কোন কমিটি হয়নি। কাশিয়ানী উপজেলা ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি আজাদ হোসেন মৃধা বিবাহিত। কিন্তু ছাত্রলীগে বিবাহিতদের থাকার কোন সুযোগ নেই। দ্রুত বিবাহিতদের বাদ দিয়ে নতুন কমিটি দেয়ার দাবি জানান তারা।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিউটন মোল্যার সাথে যোগযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার সাথে যোগাযোগ না হওয়ায় বক্তব্য পাওয়া সম্ভব হয়নি।


আরও খবর



মেয়ের সংসার ভাঙার দীর্ঘদিন পর মুখ খুললেন সামান্থার বাবা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image

দক্ষিণী ভারতীয় সিনেমার জনপ্রিয় জুটি নাগা চৈতন্য ও সামান্থা রুথ প্রভু। গত বছরের ২ অক্টোবর যৌথ এক বিবৃতিতে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন এই তারকা যুগল। তাদের সংসার ভাঙার পর সামান্থার বাবা টুঁ-শব্দও করেননি। দীর্ঘদিন পর মেয়ের বিচ্ছেদ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন পোস্ট দিলেন সামান্থার বাবা জোসেফ প্রভু। মেয়ে ও মেয়ের জামাইয়ের এই সিদ্ধান্তে হতবাক হয়েছিলেন বলে জানান তিনি।

ইনস্টাগ্রাম পোস্টে জোসেফ প্রভু লিখেছেন, ‘সামান্থা-নাগার বিচ্ছেদের সিদ্ধান্তের খবর জানার পর আমি স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলাম। আশা করেছিলাম, দ্রুত সামান্থা-নাগার সমস্যার সমাধান হবে। ওদের দুজনের এই সিদ্ধান্ত খুবই বেদনাদায়ক।’

আমাকে ভেবে এখন চিত্রনাট্য তৈরি হয়: শেফালিআমাকে ভেবে এখন চিত্রনাট্য তৈরি হয়: শেফালি তিনি আরো বলেন, ‘এই মুহূর্তগুলো কখনো ভুলতে পারব না। নাগা-সামান্থার উচিত পরস্পরের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখা।’

২০১০ সালে তেলেগু ভাষার ‘ইয়ে মায়া চেসাভ’ সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয় করেন নাগা চৈতন্য ও সামান্থা। সিনেমার সেটেই তাদের প্রথম পরিচয়। তারপরই প্রেমের সম্পর্কে জড়ান তারা। এরপর লুকিয়ে দীর্ঘদিন প্রেম করেন এই জুটি। ২০১৭ সালের ৬ অক্টোবর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা।

জানা গেছে, বিয়ের পরও অভিনয় চালিয়ে যেতে চাইছেন সামান্থা। কিন্তু পর্দায় তার খোলামেলাভাবে উপস্থিতি পছন্দ করছিলেন না নাগা চৈতন্য ও তার বাবা নাগার্জুনা আক্কিনেনি। আর এজন্যই তাদের দূরত্ব তৈরি হয়; শেষ পর্যন্ত যা বিচ্ছেদে গড়ায়।


আরও খবর

যৌনপল্লীতে নায়িকা নিপুণ আক্তার !

বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একধাপ এগিয়ে যেতে চান সাইদুর রহমান চৌধুরী

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯৫জন দেখেছেন
Image

নেত্রকোনা প্রতিনিধিঃ প্রকৃতি ও অপরূপ সৌন্দর্যের নীলাভূমি বারহাট্টা উপজেলার চিরাম ইউনিয়ন, একটি মনোমুগ্ধকর ইউনিয়ন, এই ইউনিয়নের হয়েছে ছোট বড় কয়েকটি দৃশ্যমান বিল যা দেখলে যে কেউ প্রকৃতির প্রেমে পাগল হয়ে যায়, সেজন্যই প্রতি নিহতই এই এলাকায় ঘুরতে আসে অনেক পর্যটক। এই ইউনিয়নের একজন আদর্শবান চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান চৌধুরী চিরাম ইউনিয়ন বাসীর সেবা করার উদ্দেশ্যেই যিনি জনগণের দ্বারে দ্বারে কাজ করে যাচ্ছেন। সেই ধারাবাহিকতায় তিনি গত ইউপি নির্বাচনে নৌকা মার্কা নিয়ে অংশগ্রহণ করে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর থেকে বিপুল ভোট পেয়ে চিরাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এছাড়া আজ অবধি তিনি কোনো অন্যায় অবিচারের সঙ্গে আপোষ করেননি। দৃঢ় অবস্থানের কারণে নিজ নির্বাচিত এলাকায় দিনের পর দিন তার জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। বর্তমানে যার বিকল্প হিসেবে অন্য কাউকে দেখছে না ইউনিয়নবাসী। সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া সেই মেধাবী ও পরিশ্রমী মানুষটি নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা উপজেলার চিরাম ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান চৌধুরী।

বারহাট্টা উপজেলার চিরাম ইউনিয়ন এক সময়ের অবহেলিত এই অঞ্চলটির সাধারণ মানুষের চলাচলের জন্য তেমন কোনো পাকা কিংবা আরসিসি ঢালাইয়ের রাস্তা ছিল না। ফলে চলাচলের সময় নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতেন তারা। জনসাধারণের এই দুর্দশা আর দুর্বস্থা দেখে জনগণের সেবা করার উদ্যেশে ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহন করেন। ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে ইতোমধ্যে এই ইউনিয়নের রাস্তাঘাটসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ দৃশ্যমান হচ্ছে।পাল্টে দিচ্ছেন সম্পূর্ণ ইউনিয়নের সামগ্রিক চিত্র।

চিরাম ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় আরসিসি ঢালাইয়ের রাস্তা এবং সঙ্গে ড্রেনেজ ব্যবস্থার কাজ চলমান রয়েছে, দেখে আপনার মনে হতে পারে আপনি কোনো মডেল টাউনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। তাই এই ইউনিয়নকে একটা মডেল ইউনিয়ন বলা যেতেই পারে। উন্নয়ন কাজের পাশাপাশি মহামারি করোনাকালীন পরিস্থিতির শুরু থেকে এখনও পর্যন্ত এই ইউনিয়নের কর্মহীন ও হতদরিদ্র মানুষের পাশে ব্যক্তিগত উদ্যোগে খাদ্য এবং স্বাস্থ্যসুরক্ষা সামগ্রী দেওয়াসহ বিভিন্ন মানবিক কর্মকাণ্ডের কারণেই তিনি আজ জননন্দিত। অন্যদিকে তিনি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনের পর থেকে এলাকায় মাদক এবং সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো-টলারেন্স নীতি অবলম্বনে কাজ করে চলেছেন।

এলাকার কয়েকজন সাধারণ মানুষের সাথে কথা হলে তারা বলেন , চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান চৌধুরী চিরাম ইউনিয়নের উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। ইউনিয়নবাসী বলেন সাইদুর রহমান চৌধুরী চেয়ারম্যানের বিকল্প হিসেবে অন্য কাউকে ভাবতে চাই না।

চিরাম ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় সাইদুর রহমান চৌধুরী চেয়ারম্যান এর বিকল্প কোন চেয়ারম্যান তারা চায়না। তারা শুধুই বলে বিগত ৫০ বছরেও সেই রকম কোনো উন্নয়ন হয় নাই। যা সাইদুর রহমান চৌধুরী চেয়ারম্যান করে দেখাচ্ছেন, আমরা উনার মত চেয়ারম্যানকে বারবার চেয়ারম্যান হিসেবে চিরাম ইউনিয়নে দেখতে চাই।

চিরাম ইউনিয়ন পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান নৌকার মাঝি সাইদুর রহমান চৌধুরী জানান, আমি ইউনিয়ন বাসীর ভালোবাসা নিয়েই কাজ করতে চাই তাদের সাথে নিয়েই অনেক দূর এগিয়ে যেতে চাই। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার স্বপ্ন পূরণ করতে চাই। জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে উন্নয়নের কোনো বিকল্প নেই। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী, আমি আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার একজন চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করে আমি আমার লক্ষ্যে পৌঁছাতে চাই আমার ইউনিয়ন বাসীর সহযোগিতায়।


আরও খবর



নেত্রকোণায় এস এস সি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক অন্জনা খান মজলিশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৫৮জন দেখেছেন
Image
নেত্রকোনা প্রতিনিধি: নেত্রকোণায় মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এস এস সি) ও সমমানের ৭৯ টি কেন্দ্রে বৃহস্পতিবার পরীক্ষার ১ম দিনে ২৭ হাজার ৮৭৬ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছেন।এর মধ্যে এস এস সি পরীক্ষার্থী ২১ হাজার ৯১১ জন।দাখিল পরীক্ষার্থী ৩ হাজার ৩৫ জন এবং ভোকেশনাল পরীক্ষার্থী ২ হাজার ৯৩০ জন।

নেত্রকোণা জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্র্যাট অন্জনা খান মজলিশ জেলা শহরের আন্জুমান আদর্শ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়,সরকারি বালিকা বিদ্যালয়, দত্ত উচ্চ বিদ্যালয়,জাহানারা স্মৃতি বালিকা বিদ্যালয়, চন্দ্রনাথ উচ্চ বিদ্যালয়সহ বেশ কয়েকটি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন। সঙ্গে ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউ এন ও) মাহমুদা আক্তার প্রমুখ।

আরও খবর