Logo
আজঃ সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
শিরোনাম

ইউরোপে হাহাকার, প্রতিদিন ৯৫ কোটি টাকার গ্যাস পুড়িয়ে ফেলছে রাশিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯০জন দেখেছেন
Image

ইউরোপজুড়ে যখন জ্বালানির দাম আকাশ ছোঁয়া, তখন প্রতিদিন এক কোটি ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৯৫ কোটি ৮ লাখেরও বেশি টাকা) সমমূল্যের গ্যাস পুড়িয়ে ফেলছে রাশিয়া।

জ্বালানি গবেষণা প্রতিষ্ঠান রিস্তাদ এনার্জি জানিয়েছে, ফিনল্যান্ড সীমান্তের কাছে রাশিয়ার একটি গ্যাসক্ষেত্রে প্রতিদিন গড়ে এক কোটি ডলার মূল্যের ৪.৩৪ মিলিয়ন ঘন ফুট গ্যাস পোড়ানো হচ্ছে

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ গ্যাস আগে জার্মানিতে রফতানি করা হতো। যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত জার্মানির রাষ্ট্রদূত বলছেন, রাশিয়া এই গ্যাস পুড়িয়ে ফেলছে কারণ, এটি কোথাও বিক্রি করতে পারছে না।

গ্যাস পোড়ানোর ফলে যে বিপুল পরিমাণ কার্বন ডাই-অক্সাইড নিঃসৃত হচ্ছে তাতে জলবায়ু পরিবর্তনের কুপ্রভাব বেড়ে যাওয়া নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বিজ্ঞানীরা।

রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গের উত্তর-পশ্চিমের পরটোভায়া তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) প্ল্যান্ট থেকে এই গ্যাস আসছে।

জার্মানিতে গ্যাস পৌঁছে দেওয়া নর্ডস্টিম-১ পাইপলাইনের একটি কমপ্রেসর স্টেশনের কাছে এ গ্যাসক্ষেত্র অবস্থিত, যেখান থেকে সমুদ্রের নিচ দিয়ে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ করতো রাশিয়া।

গত জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে রাশিয়া যন্ত্রিক ত্রুটির কথা বলে এই পাইপলাইন দিয়ে গ্যাস সরবরাহ কমিয়ে দিয়েছে।

 সূত্র: বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান


আরও খবর



স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন ডেপুটি স্পিকার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
Image

সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করলেন মহান সংসদের নব নির্বাচিত ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকু।

আজ মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) সকালে জাতীয় স্মৃতিসৌধের শহীদ বেদীতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। সেখানে কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি। শ্রদ্ধা নিবেদনের পর পরিদর্শন বইয়ে স্বাক্ষর করেন তিনি।

সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রশাসনের কর্মকর্তা ছাড়াও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। একাদশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার হিসেবে রবিবার (২৮ আগস্ট) শপথ নিয়েছেন পাবনা-১ আসনের সংসদ সদস্য শামসুল হক টুকু। সংসদ ভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান। 

এর আগে, ওই দিন বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদের ১৯তম অধিবেশনের শুরুতেই কণ্ঠভোটে নতুন ডেপুটি স্পিকার নির্বাচিত হন টুকু। প্রয়াত ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার স্থলাভিষিক্ত হলেন তিনি।



আরও খবর

২২ দিন ইলিশ ধরা-বিক্রি নিষিদ্ধ

বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




মোহনগঞ্জে ডিঙ্গাপোতা হাওরে নিখোঁজ জেলের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:শনিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৮৪জন দেখেছেন
Image
নেত্রকোনা প্রতিনিধি : নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার ডিংগাপোতা হাওরে দমকা হাওয়ায় নৌকা ডুবে নিখোঁজ জেলে রাসেলের মরদেহ  উদ্ধার করা হয়েছে। 

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুর পৌনে ২ টার দিকে ডিঙ্গাপোতা হাওর সংলগ্ন বদরখালী খাল থেকে নৌকাসহ তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

এর আগে শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাত আনুমানিক ৯ টার দিকে ডিঙ্গাপোতা হাওরে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ ব্যক্তির হচ্ছে-উপজেলার গাগলাজুর ইউনিয়নের বানিহারি গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে রাসেল (৩০)।

মোহনগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শী ও গাগলাজুর ইউনিয়নের বানিহারী গ্রামের সাবেক মেম্বার বাচ্চু মিয়া জানান, শুক্রবার রাত ৯টার দিকে হঠাৎ করে দমকা হাওয়া বয়ে যায়। ওই সময়ে হাওরে থাকা জেলেরা একে অন্যের সহযোগিতায় অনেকেই রক্ষা পায়। 

কিন্তু বানিহারি গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে রাসেল (৩০) একা ছোট নৌকা দিয়ে মাছ ধরছিল। বাতাস শেষ হওয়ার পর এলাকাবাসী জেলেদের সন্ধানে এগিয়ে যায়। অনেককেই পানি থেকে উদ্ধার করা হয়। তবে রাসলকে নিখোঁজ হয়।

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুর বারোটা পর্যন্ত রাসেলের কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। তার লাশ উদ্ধারের জন্য ডিঙ্গাপোতা হাওয়ারে এলাকাবাসী তল্লাশি চালাচ্ছে। দুপুর পৌনে ২ টার দিকে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে। 

ওসি আরো বলেন, এখন পর্যন্ত ডিঙ্গাপোতা হাওরে জেলে নিখোঁজের সংবাদ কেউ জানায়নি। খবর নিয়ে পুলিশ পাঠিয়েছি।

মোহনগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছাব্বির আহমেদ আকুঞ্জি মোবাইল করে বলেন, জেলে উদ্ধারের জন্য ডুবুরী দল ডিংগাপোতা হাওরে খুঁজাখুঁজির আগেই স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে।



আরও খবর



বাগমারায় সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯৩জন দেখেছেন
Image

বাগমারা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারায় সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় এ উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ হলরুমে সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদা খানম এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

উপজেলা সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সদস্য সচিব সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহমাদুল হাসান এর পরিচালনায় মুঠোফোনের মাধ্যমে বক্তব্য রাখেন, সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির প্রধান উপদেষ্টা রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য, সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। 

প্রধান উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক এমপি বলেন, বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক চেতনার দেশ। এদেশে সকল ধর্মের লোকজন বসবাস করে। কেউ যেন অকারণে বিশৃংখলা সৃষ্টি করতে না পারে সে ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে উদ্দেশ্যে সামাজিক সম্প্রীতি কমিটি গঠন করেছে সেটা যেন বাস্তবায়ন হয়। উপজেলায় সম্প্রীতি-সমাবেশ, উদ্বুদ্ধকরণ সভা, জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণের মাধ্যমে বিদ্যমান আন্তঃধর্মীয় সম্পর্ক ও সামাজিক বন্ধনকে সুসংহত রাখা সম্ভব। সেই সাথে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় ধর্মীয় ও সামাজিক বন্ধনকে এগিয়ে নিতে হবে। সমাজে কোন ভাবেই যেন ধর্মীয় উগ্রবাদ, জঙ্গীবাদ, সহিংসতা ও সন্ত্রাসবাদকে প্রতিহত করার লক্ষ্যে সবাইকে কাজ করতে হবে। এরফলে প্রতিটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সহজ হবে। সকল ধর্মীয় উৎসব যথাযথ ভাবগাম্ভীর্য ও উৎসাহ উদ্দীপনার মাধ্যমে উদযাপনের পরিবেশ ঠিক থাকবে।  

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সদস্য উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ আক্তার বেবী, বাগমারা থানার এসআই ইব্রাহীম খলিল, বাগমারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মতিউর রহমান টুকু, সাধারণ সম্পাদক ও নরদাশ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, চেয়ারম্যান রেজাউল হক, দপ্তর সম্পাদক নূরুল ইসলাম, ভবানীগঞ্জ বণিক সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম হেলাল, আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা কামরুল হাসান, ভবানীগঞ্জ ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ জিল্লুর রহমান, উপজেলা মসজিদের ইমাম আব্দুস সোবহান, ভবানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় মন্দির কমিটির সভাপতি সুনিল কুমার কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার সিংহ, ছাত্রলীগ নেতা নাদিরুজ্জামান মিলন, আব্দুল মজিদ, নারী প্রতিনিধি শামিমা বেগম, ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠীর প্রতিনিধি সমরেশ কুমার সরকার প্রমুখ। উক্ত আলোচনা সভায় সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 


 



আরও খবর



প্রযোজকের সঙ্গে বিয়ে করে যা বললেন মহালক্ষ্মী

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ৯৫জন দেখেছেন
Image

দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতে ফের বিয়ের সানাই। জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু করলেন অভিনেত্রী তথা ভিডিও জকি মহালক্ষ্মী। তামিল প্রযোজক রবিন্দর চন্দ্রশেখরণের সঙ্গে সাতপাক ঘুরলেন এই নায়িকা। জীবনের বিশেষ মুহূর্তকে লেন্সবন্দি করে তা অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন মহালক্ষ্মী।

বিয়ের ছবি দিয়ে স্বামীর উদ্দেশে তিনি লিখেছেন, 'আমার সৌভাগ্য যে জীবনসঙ্গী হিসেবে তোমাকে পেয়েছি। তোমার ভালোবাসার উষ্ণতা আমার জীবনকে পরিপূর্ণ করেছে। তোমায় ভালোবাসি আম্মু'।

বিয়ের দিন দক্ষিণের ঐতিহ্যবাহী লাল রঙা কাঞ্জীভরম শাড়ীতে সেজে উঠেছিলেন মহালক্ষ্মী। হাতে একগুচ্ছ সবুজ চুরির সঙ্গে মানানসই ভারি গয়না। ধুমধাম করে নয়, দুই পরিবারের সদস্য এবং বন্ধুদের উপস্থিতিতে ছিমছাম ভাবে তিরুপতিতে বিয়ে সেরেছেন তারা।

শোনা যায়, ২০১৯ সালে নানা সমস্যার কারণে মহালক্ষ্মীর প্রথম বিয়ে ভেঙে যায়। এর পরেই রবিন্দরের মধ্যে ভালোবাসা খুঁজে পান অভিনেত্রী। কাজের সূত্রে দুজনের পরিচয়। 'বিদিয়াম বরাই কাথিরু'র সেটে তাদের প্রথম সাক্ষাৎ। রবিন্দর প্রযোজিত সেই ছবিতে অভিনয় করছিলেন মহালক্ষ্মী। সেই আলাপ থেকেই বন্ধুত্ব। পরবর্তীতে বন্ধুত্ব গড়ায় প্রেমে। নবদম্পতিকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইন্ডাস্ট্রির তারকারা।

টেলিভিশনের চেনা মুখ মহালক্ষ্। অভিনয় করেছেন 'বাণী রানি', 'অফিস', 'উথিরিপুক্কাল', 'উরু কাই আসাই'-এর মতো একাধিক দক্ষিণী ধারাবাহিকে। খুব শীঘ্রই বিজয় রাজের পরিচালনায় তামিল ছবি 'মুন্নাভিরান'-এ দেখা যাবে তাকে। অন্য দিকে, রবীন্দরও একাধিক সফল ছবি করে প্রযোজক হিসেবে নিজের জায়গা পাকা করেছেন তিনি।


আরও খবর

যৌনপল্লীতে নায়িকা নিপুণ আক্তার !

বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




চারঘাটে সমমানের পরীক্ষা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ২৬জন দেখেছেন
Image

চারঘাট (রাজশাহী) প্রতিনিধি: সারাদেশের ন্যায় রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় এসএসসি,ভোকেশনাল ও দাখিল সমমানের পরীক্ষা শান্তিপূর্ণভাবে ও নকলমুক্ত পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় উপজেলার ৯টি কেন্দ্রে এসএসসি ২ হাজার ১২জন, দাখিল ২শ ৪৪ জন, ভোকেশনাল ও দাখিল ৮ শ ১৩ জন বাংলা প্রথমপত্রে মোট ৩ হাজার ৬৯ জন শিক্ষার্থী এই পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেন। 

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহরাব হোসেন প্রতিটিি কেন্দ্রে পরিদর্শন করে জানান, সুষ্ঠু,সুন্দর ও নকলমুক্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 



আরও খবর