Logo
আজঃ রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২
শিরোনাম

পাংশায় দিনব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৮৭জন দেখেছেন
Image

সৈকত শতদল ,রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি: পাংশা উপজেলা পরিষদ চত্তরে দিনব্যাপি ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৯ই নভেম্বর বুধবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মাদ আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ,পাংশা সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ মাসুদুর রহমান রুবেল, পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ তদন্ত ইততেখার আলম প্রধান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জালাল উদ্দির বিশ্বাস, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রোকেয়া বেগম, কৃষি কর্মকর্তা রতন কুমার ঘোষ। অনুষ্ঠান সজ্ঞালনা করেন পাংশা উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শ্যামল কুমার বিশ্বাস। 

বক্তাগণ বলেন ডিজিটাল সেবার সুফল এখন মানুষ ঘরে বসে পাচ্ছে। প্রযুক্তির মাধ্যে সেবার মান বৃদ্ধিতে কাজ করছে বর্তমান সরকার। উদাহরণ হিসেবে জরুরী সেবা ৯৯৯ এর কথা উল্লেখ করেন,এছারাও তথ্য সেবা ৩৩৩ কল সেন্টার, কৃষি সেবা কল সেন্টার ১৬১২৩, ভূমি সেবা ১৬১১২। 

এ মেলায় প্রদর্শনী ষ্টল সমূহকে  ৪টি ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করা হয়েছে প্যাভিলিয়ন ১ এ রয়েছে উদ্ভাবনী ও স্টার্টআপ, প্যাভিলিয়ন ২ এর রয়েছে ডিজিটাল সেবা, প্যাভিলিয়ন ৩ এর রয়েছে হাতের মুঠোয় সেবা, প্যাভিলিয়ন ৪ এ রয়েছে শিক্ষা দক্ষতা উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থান। 

মেলায় ব্যাংক ও অর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ব্যাংক এশিয়া পাংশা শাখা অংশগ্রহন করে,এছারাও ডিজিটাল ভূমি সেবা, ই নথি কার্যক্রম ,স্ব্যাস্থ্য সেবা ,কৃষি সেবা সম্পের্কে জনসাধারণের মধ্যে প্রচারণা করা হয়।  কুইজ প্রতিয়োগীতা ও পুরষ্কার বিতরনের মধ্যে দিয়ে বিকেলে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা শেষ হয়।    


আরও খবর



বারহাট্টায় মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে যেতে শীতকালেও নৌকার প্রয়োজন

প্রকাশিত:বুধবার ২৩ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৩২জন দেখেছেন
Image

সোহেল খান দূর্জয় : যাদের হাত ধরে এদেশে স্বাধীনতা এসেছে তাদেরই একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা জজ মিয়া খান। শহরে থেকেও যেন তিনি ভাটি অঞ্চলে বসবাস করছেন।যেখানে অগ্রহায়ণ মাসের ফসল উৎপাদন করে ঘরে তোলা হচ্ছে। সফলী জমি গুলো সরিষা চাষ করার উপযোগী হয়ে খড়খড়া হয়ে গেছে, সেই সময় নেত্রকোনা বারহাট্টা উপজেলা আসমা ইউনিয়নের আসমা গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জজ মিয়া খানের বাড়িতে যেতে নৌকা ব্যবহার করতে হচ্ছে। 

হেমন্তকাল বেদ করে শীত কাল এসে গেছে, এখনও জজ মিয়ার বাড়ির সামনে পানি থইথই করছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জজ মিয়া খানের  বড় সন্তান নূরুল আমিন খান সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগ এর সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা এই বছরের বন্যার পর থেকে খুব কষ্টে আছি। অল্প জায়গার জন্য একটি রাস্তা করতে পারছি না।  এক সাইটের জমি আমার আপন খালু শাহজাহান খান এর , আরেক সাইটের জমি আমার চাচা জানু মিয়ার । আমার ভাই পুলিশে চাকরি করে। সে রাস্তার জন্য  বর্তমান বাজার মূল্য থেকে এই জমির দাম বেশি দিতে চেয়েছে। কিন্তু তাতেও কোন লাভ হচ্ছে না। এখন এই নৌকাটিই আমাদের প্রধান বাহন। এটি ছাড়া এক মুহূর্ত চলতে পারি না। আমার বাবা কয়েকদিন যাবৎ খুব অসুস্থ,ঘর থেকে ধরে ধরে বের করতে হয়। 

এই ব্যপারে কোন অভিযোগ হয়েছে কি-না জানতে চাইলে নূরুল আমিন খান বলেন গত মাস দুয়েক আগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি অভিযোগ দিয়েছি। কিন্তু কোন ফল হয়নি। 

স্হানীয় সূত্রে জানা যায় জজ মিয়া খানের বাড়িতে যেতে সামনে যে জমিটুকু আছে সেই জমির মালিক তার আত্মীয়। জজ মিয়া সরলসোজা মানুষ। অন্য কোন মুক্তিযোদ্ধা হলে এত দিনে রাস্তা হয়ে যেত।

জমির মালিক শাহজাহান খান বলেন, এই জমির পশ্চিম পাশে একটি রাস্তা রয়েছে। ইচ্ছে করলে  ঐ রাস্তা দিয়ে তারা যাতায়াত করতে পারে। আমার দুই ছেলে। এই জায়গা টি বাসা করার জন্য কিনেছি। রাস্তার জন্য কিছু জমি বিক্রি করলে আমার জায়গা কমে যাবে। 

আসমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম খান চন্দু বলেন, আমি রাস্তা দিতে চাই। কিন্তু রাস্তার দেওয়ার আগেই বাঁধা পড়লে তো তা সম্ভব হয়ে উঠে না। বিষয়টি আসলেই দুঃখ জনক আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করবো, যেন তাড়াতাড়ি এই রাস্তাটি হয়। 

সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহ মোহাঃ আবদুল কাদের বলেন, বারহাট্টা শহরের পাশে মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জজ মিয়া খানের বাড়ি। এখানে সারাবছর পানি লেগে থাকে, সে অসুস্থ, তাকে দেখতে গেলে কাঁদা পানির উপর দিয়ে যেতে হয়। এটা আসলেই লজ্জা জনক। আমি চাই দ্রুত যেন এই মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি যাওয়ার রাস্তাটি হয়ে যায়। 

বারহাট্টা উপজেলায় নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাজহারুল ইসলাম বলেন, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জজ মিয়া খানের বাড়িতে যাওয়ার জন্য নিজস্ব কোন ভূমি না থাকায় রাস্তা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। জমির মালিক পক্ষ টাকা দিয়েও জমি বিক্রয় করতে রাজি না হওয়ায় রাস্তাটি হচ্ছে না। এর পরও চেষ্টা করবো যেন রাস্তাটি করা যায়।


আরও খবর



নেত্রকোনায় পুলিশের মাসিক অপরাধ সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৬০জন দেখেছেন
Image
সোহেল খান দূর্জয় : নেত্রকোনায় পুলিশের মাসিক অপরাধ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সম্মেলন কেন্দ্রে এই মাসিক অপরাধ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নেত্রকোণা জেলা পু‌লিশ লাই‌ন্সে মা‌সিক কল্যাণ সভা ও পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অ‌ক্টোবর মাসের 'মাসিক অপরাধ সভা' অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন নেত্রকোণা জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার মোঃ ফ‌য়েজ আহ‌মেদ। অপরাধ সভায় জেলার সার্বিক আইন-শৃংঙ্খলা বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হয় এবং অ‌ক্টোবর মাসের কৃতিত্বপূর্ণ কাজের জন্য পুরুস্কৃত করা হয়। নেত্র‌কোণা জেলায় (১৫ অ‌ক্টোবর ২০২২) শে শ্রেষ্ঠ অ‌ফিসারগ‌ণের তা‌লিকা,শ্রেষ্ঠ সার্কেল অফিসার

মোর‌শেদা খাতুন, অ‌তি‌রিক্ত পুলিশ সুপার, সদর সার্কেল,শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ খন্দকার শাকের আহমেদ,অফিসার ইনচার্জ নেত্রকোণা মডেল থানা,শ্রেষ্ঠ আই‌সি মুহাম্মদ রা‌শেদুল ইসলাম,পু‌লিশ প‌রিদর্শক (নিঃ) শ্যামগঞ্জ তদন্ত কেন্দ্র,শ্রেষ্ঠ এসআই এসআই(নিঃ)/মোঃ কাকন নেত্র‌কোণা মডেল থানা,শ্রেষ্ঠ ডিবি অফিসার এসআই(নিঃ)/মোঃ তাহের উদ্দিন জেলা গোয়েন্দা শাখা,শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক অফিসার
টিএসআই/মোঃ আকবর হো‌সেন সদর ট্রাফিক, শ্রেষ্ঠ এএসআই এএসআই(নিঃ)/মামুন ইবনে হেলাল কলমাকান্দা থানা। নেত্র‌কোণা জেলায় অ‌ক্টোবর/২০২২ খ্রি. বি‌শেষ পুরষ্কার প্রাপ্ত অ‌ফিসারগ‌ণের তা‌লিকা,এএসআই/আবুল হোসেন আইসিটি শাখা এএসআই/ এনা‌য়েত কবির শ্যামগঞ্জ পু‌লিশ তদন্ত কেন্দ্র।এসময় পুরস্কৃতদের হাতে ক্র্যাশ তুলে দেন পুলিশ সুপার ফয়েজ আহমেদ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) হারুন উর রশীদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( প্রশাসন) ফখরুজ্জামান জুয়েল পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোর্শেদা খাতুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দুর্গাপুর সার্কেল) মাহমুদা শারমিন নেলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বারহাট্টা সার্কেল) মো. সাইদুর রহমান, ডিষ্ট্রিক্ট প্রফেশনাল ব্রাঞ্চ ডিষ্ট্রিক্ট ইন্টেলিজেন্স অফিসার মিজানুর রহমান, জেলা গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডিবি (ওসি)পূর্ব মোঃ সায়েদুর রহমান, জেলা গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডিবি (ওসি) পশ্চিম আবুল কালাম পিপিএম সহ, সব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা(ওসি)।

সভায় জেলার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম জোরদার, গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিল, স্পর্শকাতর মামলা সমূহের অগ্রগতি ও জেলার গোয়েন্দা কার্যক্রমসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়।


আরও খবর



নেইমার কী পেলে হতে পারবেন?

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

আন্তর্জাতিক ফুটবল অঙ্গনে নেইমারের আর্বিভাব হয়েছিল ঢাকঢোল পিটিয়ে। কেউ কেউ আদর করে তাকে ডাকত ‘নতুন পেলে’ বলে। পেলে হওয়ার মতো অমিয় প্রতিভাও তার ছিল। কিন্তু নেইমার ঈশ্বরপ্রদত্ত প্রতিভার সঠিক ব্যবহার করে এখনো পেলে হয়ে উঠতে পারেননি। কৈশোর-তারুণ্য পেরিয়ে এখন তার বয়স ৩০। এরই মধ্যে তিনি আভাস দিয়েছেন আন্তর্জাতিক ফুটবল ক্যারিয়ারকে ‘না’ বলে দেওয়ার। আসলেই নেইমার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের বিদায়ঘণ্টা বাজাবেন কি না, সেটা বলবে সময়। তবে নেইমার এখনো পর্যন্ত ব্রাজিলকে বিশ্বকাপ জেতাতে পারেননি।

২০১৪ ও ২০১৮ দুটি বিশ্বকাপেই ব্রাজিলিয়ানরা ‘হেক্সা’র স্বপ্ন সাজিয়েছে নেইমারকে ঘিরে। কিন্তু নেইমার তা পূরণ করতে পারেননি। এতে অবশ্য ভাগ্যেরও দায় আছে। ২০১৪ সালে নিজেদের মাটির বিশ্বকাপে দুর্দান্তই খেলছিলেন নেইমার। কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালে গুরুতর চোট পেয়ে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়েন। নেইমারবিহীন ব্রাজিল সেমিফাইনালে ১-৭ গোলে বিধ্বস্ত হয় জার্মানির কাছে। ২০১৮ বিশ্বকাপের আগেও চোটে ছিলেন নেইমার। তবে সুস্থ হয়ে বিশ্বকাপে খেললেও কোয়ার্টার ফাইনালেই বেলজিয়ামের কাছে হেরে যায় তাদের ব্রাজিল।

নেইমারের আভাসমতো এটাই তার শেষ বিশ্বকাপ! আর কাতার বিশ্বকাপ ঘিরে নেইমারের আত্মবিশ্বাসের পারদটাও অনেক ওপরে। মজা করে ক্লাব সতীর্থ মেসিকে বলেছেন, তাদের হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতবেন। কিংবদন্তি পেলে থেকে শুরু করে ব্রাজিলের ১৯৯৪ বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক রোমারিও, সবাই আশাবাদী এবার ‘হেক্সা’র স্বপ্ন পূরণ হবে। তবে স্বপ্নটাকে সত্য করতে হলে সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিতে হবে নেইমারকে। তা ব্রাজিল তারকা দুর্দান্ত ফর্মেও আছেন। ক্লাব পিএসজির হয়ে এরই মধ্যে মৌসুমে ১৯ ম্যাচে করেছেন ১৫ গোল। ক্লাবের ফর্মটা তিনি কাতারে টেনে আনতে পারলে স্বপ্নপূরণের পথে অনেকটাই এগিয়ে যেতে পারবে ব্রাজিল। তাছাড়া কোচ তিতের অধীনে ব্রাজিলের এবারের দলটিও দুর্দান্ত।

গ্যাব্রিয়েল জেসুস, রিচার্লিসন, ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, পেদ্রো, রদ্রিগো, অ্যান্তনি—ব্রাজিল দলে গোল দেওয়ার লোকের অভাব নেই। তবে দেশকে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জেতাতে হলে মূল ভূমিকাটা পালন করতে হবে নেইমারকেই। নেইমার পারবেন ‘পেলে’ হয়ে নিজের এবং দেশবাসীর স্বপ্ন পূরণ করতে?

জ্বলে ওঠার জন্য নেইমারের সামনে অন্য একটি উপলক্ষ্যও আছে। কিংবদন্তি পেলেকে টপকে ব্রাজিলের হয়ে সর্বোচ্চ গোল করার রেকর্ড। রেকর্ডটি থেকে মাত্র ৩টি গোল দূরে নেইমার। জাতীয় দলের হয়ে ১২১ ম্যাচে ৭৫ গোল করেছেন তিনি। দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৭৭ গোল করেছেন পেলে। মানে কাতারে দুটি গোল করলেই নেইমার ছুঁয়ে ফেলবেন পেলেকে। ৩টি করলে গড়ে ফেলবেন নতুন রেকর্ড।



আরও খবর

কাতার বিশ্বকাপই কি শেষ নেইমারের ?

সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২




ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে নবাগত ইউএনও'র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত।

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ৮৯জন দেখেছেন
Image
মোঃ মজিবর রহমান শেখ: ৭ নভেম্বর সোমবার সকাল ১০.৩০ টায় হরিপুরে নবাগত ইউএনও' এ কে এম শরীফুল হক এর আহবানে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে হরিপুর উপজেলার স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, উপজেলা পর্যায়ের সকল কর্মকর্তাবৃন্দ,গণমাধ্যম প্রতিনিধি, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান ও এনজিও প্রতিনিধি সহ  আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত সভায়  উপস্থিত ছিলেন হরিপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ,অধ্যাক্ষ  জিয়াউল হাসান মুকুল, সভাপতি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

নবাগত হরিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একেএম শরীফুল হক, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  এস এম আলমগীর, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বাবূ নগেন কুমার পাল, মোসলেম উদ্দিন কলেজের অধ্যক্ষ  মোঃ সৈয়দুর রহমান, হরিপুর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ও হরিপুর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি  মোঃ আব্দুল কাইয়ুম পুষ্প , ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ সদস্য  মোঃ আনিসুজ্জামান শান্ত, কৃষি বিষয়ক কর্মকর্তা রুবেল হোসেন, শিক্ষা কর্মকর্তা  মোঃ রায়হানুল হক, হরিপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক  মোঃ মনোয়ারুল ইসলাম রিপন, হরিপুর থানা এস আই মোঃ আবু ঈসা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ ও বিজিবির কোম্পানি কমান্ডারগণ।  উক্ত মতবিনিময় সভার আলোচনায় ভূমি সমস্যা, কৃষি বিষয়ে সংকট নিরসন, শিক্ষা ক্ষেত্রে অচলাবস্থা, চোরাচালান, মাদক দ্রব্য , শিশুপার্ক ,সাহিত্য সাংস্কৃতি বিষয়ে সংকট ,কিশোর অপরাধ,বাল্য বিবাহসহ বিবিধ সমস্যা সম্পর্কে আলোচনা করা হয়। আলোচনায় নবাগত নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, "আমি অত্র এলাকার উন্নয়নে সাধ্যানুযায়ী আন্তরিকভাবে কাজ করে যাবো, এলাকার উন্নয়নে স্ব স্ব জায়গা থেকে দায়িত্বশীল ভূমিকা আশা করছি, আপনাদের সবার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করি"।

সম্মানিত উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয় হরিপুর উপজেলার গর্বিত সাফল্য আলোকপাত করেন, তবে হরিপুর উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোর অগ্রগতিতে গুরুত্বারোপ করার  আহ্বান জানান। আরো উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা ও বিভিন্ন সুশীল সমাজের বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গসহ বিভিন্ন স্তরের সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী-কর্মকর্তাবৃন্দ, ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

আরও খবর



কর্ণফুলীর তলদেশে চলবে গাড়ি, প্রথম টিউব উদ্বোধন কাল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৫ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৭ নভেম্বর ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামে কর্ণফুলীর তলদেশে নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধু টানেলের প্রথম টিউব উদ্বোধন করা হবে শনিবার (২৬ নভেম্বর)। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এটি উদ্বোধন করবেন। ইতোমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সংশ্লিষ্টরা।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের সচিব মনজুর হোসেন এক চিঠিতে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের দক্ষিণ টিউবের পূর্ত কাজ শেষ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসাবে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এটি উদ্বোধন করবেন।

কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ প্রকল্পের পরিচালক হারুনুর রশীদ জানিয়েছেন, চট্টগ্রামকে চীনের সাংহাই শহরের আদলে ‘ওয়ান সিটি টু টাউন’ মডেলে গড়ে তুলতে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল করছে সরকার। বহুল প্রত্যাশিত এ টানেলের একটি টিউবের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

টানেলের পতেঙ্গা প্রান্তে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। পুরো টানেলের উদ্বোধন হবে আগামী জানুয়ারিতে। এতে যুক্ত থাকবেন মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গসহ অনেকেই। এর আগে, গত ৭ সেপ্টেম্বর সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরও জানিয়েছিলেন দুই ভাগে বঙ্গবন্ধু টানেল উদ্বোধনের কথা।

প্রসঙ্গত, চীনের সহযোগিতায় কর্ণফুলীতে দেশের প্রথম এ টানেল নির্মিত হচ্ছে। ১০ হাজার ৩৭৪ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন আছে মেগা প্রকল্পটি। এখন চলছে টানেলের ভেতরে ফায়ার ফাইটিং, লাইটিং ও কন্ট্রোল ব্যবস্থাপনার কাজ।

প্রকল্পের গাড়ি পরীক্ষামূলকভাবে সেখানে চালানো হচ্ছে। নদীর তলদেশে হওয়ায় নিরাপত্তার জন্য পানি জমতে পারে, এমন আশঙ্কায় বসানো হচ্ছে ৫২টি সেচপাম্প। নদীর তলদেশে স্থাপন করা দুটি টিউবের একটিতে কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে বিকল্প পথে গাড়ি চালানোর ব্যবস্থা রাখতেও কাজ চলছে।


আরও খবর

এক দিনের সফরে যশোরে প্রধানমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার ২৪ নভেম্বর ২০২২